অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ

শেষ ষোলোর পথে বাংলাদেশ

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক

টানা দুই ম্যাচ জিতে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল অনেকটাই নিশ্চিত করে ফেলেছে বাংলাদেশ যুবারা। কানাডাকে ৬৬ রানে হারিয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সুপার লিগের পথে এগিয়ে গেল লাল সবুজের জার্সিধারীরা। নিউজিল্যান্ডের লিঙ্কনে তৌহিদ হৃদয়ের দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে ভর করে টাইগারদের ২৬৪ রানের জবাবে ৪৯.৩ ওভারে ১৯৮-তে কানাডার ইনিংস। খবর বাংলানিউজ।
অফস্পিন ঘূর্ণিতে পাঁচটি উইকেট দখল করেন উদীয়মান অলরাউন্ডার আফিফ হোসেন। কানাডার হয়ে সর্বোচ্চ ৬৩ রান করেন অধিনায়ক আরস্লান খান। ওপেনার প্রনব শর্মা ৩৪, আকাশ গিল ২২, কেভিন সিং ২৪ রান করে আউট হন। ২৬ রানে অপরাজিত থাকেন কাভিয়ান নারেস।
এর আগে টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় কানাডা। ১২৬ বলে ১২২ রানের চমৎকার এক দায়িত্বশীল ইনিংস উপহার দেন চার নম্বরে নামা তৌহিদ হৃদয়। তাতে ছিল ৯টি চার ও ১টি ছক্কার মার। অর্ধশতক হাঁকান বল হাতে প্রতিপক্ষের লাগাম টেনে ধরা আফিফ (৫০)। ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম ৪৭, অধিনায়ক সাইফ হাসান ১৭ ও আমিনুল ইসলামের ব্যাট থেকে আসে ১৯।। কানাডিয়ান পেসার ফয়সাল জামকান্ডিও পাঁচ উইকেটের কীর্তি উদযাপন করেন।
অলরাউন্ড নৈপুণ্যে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন আফিফ।
এদিকে গতকাল ‘সি’ গ্রুপের অপর ম্যাচে বাংলাদেশের কাছে বিধ্বস্ত নামিবিয়ার বিপক্ষে প্রত্যাশিত জয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করেছে ইংল্যান্ড। ১৯৭ রানের লক্ষ্যটা ১৫৫ বল ও ৮ উইকেট হাতে রেখে টপকে যায় ইংলিশরা। নিজেদের প্রথম ম্যাচে নামিবিয়াকে ৮৭ রানে হারিয়েছিল বাংলাদেশ অ-১৯ টিম (বৃষ্টির কারণে ম্যাচটি ২০ ওভারে হয়েছিল)।
পয়েন্ট টেবিলে দুই ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বাংলাদেশ। এক ম্যাচ খেলা ইংল্যান্ড ২ পয়েন্টে দ্বিতীয় স্থানে। দুই ম্যাচেই হারের লজ্জায় নামিবিয়া। কানাডার সামনে সুপার লিগে টিকে থাকার লড়াই। আগামী ১৮ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড ও কানাডা-নামিবিয়া ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। খেলা শুরু বাংলাদেশ সময় ভোর সাড়ে ৩টায়। দু’দিন পর গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড ও কানাডা।
১৬ দলের শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে চারটি গ্রুপ থেকে শীর্ষ দু’টি করে টিম চলে যাবে কোয়ার্টার ফাইনালে। অন্যরা প্লেট পর্বে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে।