‘শিপ ব্রেকিং শিল্পকে দেশের স্বার্থে বাঁচিয়ে রাখতে হবে’

বিজ্ঞপ্তি
BSBRA_Press-16-04-18-(1)

বাংলাদেশ শিপ ব্রেকার্স অ্যান্ড রিসাইক্লার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএসবিআরএ) এর সভাপতি এম এ তাহের বলেন, শিপ ব্রেকিং শিল্পকে দেশের স্বার্থে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। এ শিল্প দেশের অর্থনীতিতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। বর্তমান সময়ে আমরা এখানে শিশু শ্রম মুক্ত করেছি। স্বল্প সময়ের মধ্যে এখানে দুর্ঘটনা জিরোতে নিয়ে আসতে পারব বলে আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস। তিনি গতকাল ভাটিয়ারীর একটি কনভেনশন সেন্টারে জাহাজ পুনঃপ্রক্রিয়াজাতকরণ সেক্টরে শিশু শ্রম নিরসন ও অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা রোধে উদ্বুদ্ধকরণ সভায় সভাপতির বক্তব্যে একথা বলেন। বাংলাদেশ শিপ ব্রেকার্স অ্যান্ড রিসাইক্লার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএসবিআরএ), শ্রম ও কর্মসংস’ান মন্ত্রণালয় এবং কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর এ সভার আয়োজন করে।
অ্যাসোসিয়েশন সহকারী সচিব মো. নাজমুল ইসলামের সঞ্চালনায় এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিএসবিআরএ’র সচিব মো. সিদ্দীক। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর উপ মহাপরিদর্শক, মো. আবদুল হাই খান, বিএসবিআরএ’র ভাইস প্রেসিডেন্ট আমজাদ হোসেন চৌধুরী, শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ড শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি সফর আলী, ইয়ার্ড মালিক মাস্টার আবুল কাশেম, ইপসার প্রকল্প পরিচালক মো. আলী শাহীন। সেইফটি অফিসারের পক্ষে বক্তব্য রাখেন সৈয়দ জামিল উদ্দিন, ইয়ার্ড ম্যানেজারের পক্ষে আজম মিয়া, সেইফটি এজেন্সির নিরুজ বড়-য়া, সেইফটি অফিসার রনজিত কুমার নাথ, মো. জাহাঙ্গীর, শুভ্রত দত্ত প্রমুখ।
ভাইস প্রেসিডেন্ট আমজাদ হোসেন চৌধুরী বলেন, নানা রকম ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করে আমরা টিকে আছি। এ শিল্প বিভিন্ন দেশের চেয়ে আমাদের দেশে নিরাপদে প্রক্রিয়াজাতকরণ করা হচ্ছে। বিদেশে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জল হচ্ছে। দুর্ঘটনামুক্ত ইয়ার্ডে পরিণত করার জন্য তিনি শ্রমিকদেরকে প্রতিদিন দিকনির্দেশনা দেয়ার তাগিদ দেন।
কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর উপ মহাপরিদর্শক মো. আবদুল হাই খান বলেন, জাহাজ ভাঙা শিল্পকে টিকিয়ে রাখতে হলে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ শ্রমিক তৈরি করতে হবে।