শিক্ষকের প্রহারে মাদ্রাসা শিক্ষার্থী আহত রাউজানে

নিজস্ব প্রতিনিধি, রাউজান

রাউজানের আইলীখীল নুরুল হক হেফজ ও এতিমখানার শিক্ষার্থী ফারুক শিক্ষকের বেদম প্রহারে আহত হয়ে ঘরে ছটফট করছে। পৌর এলাকার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ওয়াহেদের খীল এলাকার দিনমজুর নুরুল বশরের ৮ বছর বয়সী ফারুককে কোরআন শরীফ হেফজ করার জন্য ভর্তি করা হয়। ফারুক ৮ পারা কোরাআন শরীফ হেফজ করে। শিক্ষক হাফেজ রিদোয়ান ১৬ এপ্রিল সকালে ফারুককে লাঠি দিয়ে বেদম প্রহার করে। এতে ফারুকের পিঠে, মুখে, বাহুতে, কোমরে জখম হয়। রক্তাক্ত জখম অবস’ায় শিশু ফারুক পালিয়ে তার বাড়িতে চলে যায়।
এসময়ে তার মা মরিয়াম বেগম কান্নায় ভেঙে পড়লে এলাকার লোকজন এসে রক্তাক্ত অবস’ায় শিশু ফারুককে নিয়ে হেফজখানায় গেলে প্রহারকারী শিক্ষক ও অন্য কোনো শিক্ষক তাদের অভিযোগে কর্ণপাত না করে তাদের তাড়িয়ে দেয় বলে শিশু ফারুকের মা মরিয়াম বেগম অভিযোগ করেন। তিনি জানান, ফারুকের চিকিৎসা বাবদ ২ হাজার টাকা প্রতিবেশীর কাছ থেকে ঋণ নিয়ে খরচ করেন। বর্তমানে ফারুক বিছানায় যন্ত্রণায় ছটফট করছে।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে হাফেজ রিদোয়ান বলেন, আমি শিশু ফারুককে মেরেছি।