শাহজালালে সোহেল তাজের স্যুটকেসের ‘তালা ভেঙে খোঁজাখুঁজি’

সুপ্রভাত ডেস্ক

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজীম আহমেদ সোহেল তাজ অভিযোগ করেছেন, ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তালা ভেঙে তার স্যুটকেস খোলা হয়েছিল। গতকাল সোমবার এক ফেইসবুক পোস্টে ওই ঘটনার কথা জানিয়ে তার সঙ্গে স্যুটকেসের একটি ছবিও দিয়েছেন তিনি।
কাতার এয়ারওয়েজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সোহেল তাজের স্যুটকেস খোলার বিষয়টি তারা তদন্ত করে দেখছে। খবর বিডিনিউজ’র।
স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমদের ছেলে সোহেল তাজ ফেইসবুকে লিখেছেন, গত ২২ অক্টোবর দেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছানোর পর তিনি স্যুটকেস খোলা অবস্থায় পান। ওই স্যুটকেসের সঙ্গে ট্যাগে তার নাম স্পষ্ট করে লেখা ছিল।
‘কেউ একজন ঢাকা বিমানবন্দরে আমার স্যুটকেসের তালা ভেঙে আমার অনুমতি ছাড়াই ভেতরে খোঁজাখুঁজি করেছে। স্যুটকেসে আমার বাবাকে নিয়ে লেখা কিছু বই ছিল।’
এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে ঢাকা কাস্টম হাউজের সহকারী কমিশনার মো. সাইদুল ইসলাম বলেন, ‘কাউকে তল্লাশি করার অর্থ হল তার উপস্থিতিতে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তার ব্যাগেজ বা শরীরে সন্দেহজনক কিছু আছে কিনা সেটা দেখবে। যাত্রী যখন তার ব্যাগেজ এয়ারলাইন্সকে বুঝিয়ে দেয়, সেই এয়ারলাইন্স তাকে একটি ট্যাগ দেবে।
‘এক্ষেত্রে মালামাল খোয়া গেলে বা কোনো ক্ষতি হলে তার দায় এয়ারলাইন্সকেই নিতে হবে। এখানে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কিছু করার থাকে না।’
সোহেল তাজ যে রোববার কাতার এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছেন, তা নিশ্চিত করেছেন একজন কর্মকর্তা।
কাতার এয়ারওয়েজের কাস্টমার সার্ভিস অফিসার বলেন, ‘আমরা এরই মধ্যে বিষয়টা জানতে পেরেছি। অনেকেই আমাদের ফোন করে এ নিয়ে বিস্তারিত জানতে চাইছেন।
‘উনি একজন সম্মানিত মানুষ। কেন তার ব্যাগেজ নিয়ে এমন হল- তা তদন্ত করে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।’