শহীদুল্লাহর চিঠি পুত্র যকীয়ূল্লাহকে

Munirah Bashir

Peking Hotel
17.05.56
১৭.০৫.৫৬
দোআবরেষু,
কলিকাতা হইতে শুক্রবার গতে রাত্রিতে রওয়ানা হইয়া শনিবার রেঙ্গুন হইয়া ১১ ঘণ্টায় বেলা ৩টার সময় হংকঙে পৌঁছাই। পরদিন ক্যান্টনে রেলে পৌছাই। হংকঙে এক রাত্রি ছিলাম। ক্যানুটনে এক রাত্রি থাকিয়া পরদিন সকালে রেলযোগে রওয়ানা হইয়া মঙ্গলবার হ্যান [অস্পষ্ট] পৌঁছাই। সেখান হইতে বিকালে রেলে রওয়ানা হইয়া গতকল্য বুধবার রাত্রি ৯/৪৫ মি. সময় পেকিং শহরে পৌঁছাইয়াছি।
প্রত্যেক স’ানে সরকারি সম্মানিত অতিথি হিসেবে শ্যেষ্ঠ হোটেলে অবস’ান করি। সঙ্গে পেকিঙে ইসলামিক এসোসিয়েশনের একজন সভ্য ও একজন ওহঃবৎঢ়ৎবঃবৎ সকল সময়ে আছে। আদর অভ্যর্থনা খাওয়া দাওয়া ধুমধামের সহিত চলিতেছে। ২রা জুন নাগাদ কলিকাতায় ফিরিব আশা করি। সফী মিঞার জন্য হংকঙে একটি রেন কোট প্রায় ৫ পাউন্ড মূল্যে কিনিয়াছি। কাপড় চোপড় কিনিলে অত্যধিক ফঁঃু দিতে হয়। এই জন্য কিনিতে পারিতেছি না। সিরাজুল হক সঙ্গে আছে। ক্যানুটনে পশ্চিম পাকিস্তানের ৪ জন সদস্য সঙ্গী হইয়াছেন। এখন আমরা ৮ জন। আজ বা কাল পশ্চিম পাকিস্তান হইতে আর এক জন আসিবেন। ভালো আছি। তোমাদের জন্য দোআ করিতেছি। তোমার ইদু মিঞার কথা সকল সময় মনে পড়িতেছে।