রোহিঙ্গাদের জন্য তিন বছরে ৩০ কোটি ডলার কানাডার

সুপ্রভাত ডেস্ক

রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর সংকট উত্তরণে তিন বছরে ৩০ কোটি ডলার দেবে কানাডা। কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো গত বুধবার রোহিঙ্গা সংকট মোকাবেলায় তার দেশের কৌশল তুলে ধরে এই অর্থ সহায়তার ঘোষণা দেন। রোহিঙ্গাদের মানবিক ত্রাণ সহায়তা, তাদের জন্য উন্নয়ন কর্মকাণ্ড এবং মিয়ানমারের রোহিঙ্গা বসতিতে সি’তিশীলতা আনার লক্ষ্যে ‘সমন্বিত ও সময়োপযোগী উপায়ে’ এই সহায়তা দেওয়া হবে। খবর বিডিনিউজের।
গত বছর আগস্টে রাখাইনে নিপীড়নের মুখে বাংলাদেশ অভিমুখে রোহিঙ্গাদের ঢল নামলে সৃষ্ট মানবিক সংকট মোকাবেলায় প্রথম দিকে যেসব দেশ সাড়া দিয়েছিল তাদের মধ্যে অন্যতম কানাডা। এখন পর্যন্ত রোহিঙ্গাদের সবচেয়ে বেশি সহায়তাকারী দেশগুলোরও একটি তারা।
ট্রুডো বলেন, ‘আমাদের বর্তমান উদ্যোগ এবং সামনে এগোনোর লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক সমপ্রদায় ও জাতিসংঘের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকারের’ ভিত্তিতে এই কৌশল প্রণয়ন করা হয়েছে।
মিয়ানমারে কানাডার প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত বব রায়ের চূড়ান্ত
প্রতিবেদনের সুপারিশগুলোর ওপর গুরুত্বারোপ করে তৈরি করা এই ‘সমন্বিত’ স্ট্র্যাটেজিতে চার ক্ষেত্রে কর্মপরিকল্পনা উল্লেখ করা হয়েছে।
বাংলাদেশ ও মিয়ানমারে মানবিক সংকট, মিয়ানমারের রাজনৈতিক পরিসি’তি, দায়মুক্তি ও জবাবদিহির প্রশ্ন এবং কার্যকর সমন্বয় ও সহযোগিতা নিশ্চিত করা হয়।
জাস্টিন ট্রুডো বলেন, ‘যখন রোহিঙ্গা সমপ্রদায় ও অন্যান্য সংখ্যালঘু সমপ্রদায়ের লাখ লাখ মানুষ গুরুতর মানবাধিকার লংঘনের শিকার হবে তখন কানাডা অলস বসে থাকবে না। এই সংকট মোকাবেলায় বৈশ্বিক দায়িত্ববোধ থেকে আমরাও কাজ করব।
‘আমরা অন্যদেরও সাধুবাদ জানাই যারা সহমর্মিতা ও সহৃদয়তা নিয়ে কাজ করছে, বিশেষত বাংলাদেশ সরকার এবং ওই এলাকার জনগণ যারা প্রয়োজনের সময় প্রতিবেশীদের নিরাপদ আশ্রয় দিচ্ছে।’