রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্রাজিল ফেভারিট : কাকা

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক

তিনটি বিশ্বকাপ কেটে গেছে, ব্রাজিলের ষষ্ঠ শিরোপার অপেক্ষা আর ফুরোয়নি। দেশের মাটিতে গত বিশ্বকাপে তো বিশাল হারের লজ্জা নিয়ে সেমিফাইনালে ছিটকে গিয়েছিল তারা। তবে জার্মানির কাছে বিধ্বস্ত হওয়ার সেই গল্প এখন অতীত। তিতের অধীনে নতুন ব্রাজিল এগিয়ে চলেছে দুর্বার গতিতে। সবার আগে রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকিট পেয়েছে তারা। সাবেক মিডফিল্ডার কাকার বিশ্বাস, এবার দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান হবে। খবর বাংলাট্রিবিউন’র।
তিতের ব্রাজিলের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ওরল্যান্ডো সিটির এ তারকা। বিশ্বকাপ বাছাইয়ে টানা ৮ ম্যাচ নেইমারদের জিততে দেখে মু তিনি। এক সাক্ষাৎকারে কাকা জানালেন তার অনুভূতির কথা, ‘ব্রাজিলিয়ান জাতীয় দলের জন্য অসাধারণ কাজ করছেন তিতে। আমি মনে করি আগামী বিশ্বকাপের জন্য খুব ভালো জায়গায় থাকবে ব্রাজিল। শিরোপার জন্য ফেভারিট হিসেবেই তারা খেলবে। আমি তাদের দেখে খুব খুশি।’
গত দুই বছরে অনেক পথ পাড়ি দিয়েছে ব্রাজিল। ২০১৪ সালের বিশ্বকাপে জার্মানদের কাছে ৭-১ গোলে হারের লজ্জা ভুলে যাওয়ার মতো পারফরম্যান্স করেছে তারা।
যদিও কোপা আমেরিকায় প্যারাগুয়ের বিপক্ষে পেনাল্টিতে হেরে বিদায় নিতে হয়েছে। এর পর বিশ্বকাপ বাছাইয়ে খুব ভালো হয়নি শুরুটা। প্লেঅফের বাইরে চলে গিয়েছিল তারা। কোপার শতবার্ষিকীতে তো গ্রুপ পর্বেই ছিটকে গেল, চাকরি হারালেন দুঙ্গা। তবে তিতে এসেই জাদুর পরশ বুলিয়ে দিলেন। ছয় নম্বরে থাকা ব্রাজিল টানা ৮ ম্যাচে এখন বিশ্বকাপ বাছাইয়ের শীর্ষস’ানে।
গত বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকে শুরু করে কোপার শতবার্ষিকী পর্যন্ত ব্রাজিলের পারফরম্যান্সকে অন্যভাবে দেখছেন কাকা, ‘জাতীয় দলের জন্য এটা ছিল একটা খারাপ সময়। ব্রাজিলে আমরা এ ধরনের পরিসি’তিতে অভ্যস্ত। কারণ জাতীয় দলে সবসময় এরকম উত্থান পতন ছিল।’
দলের প্রাণভোমরা নেইমার, এটা অস্বীকার করার উপায় নেই। কাকাও করলেন না।
তবে নেইমারের চাপ পাউলিনিয়ো, রবার্তো ফিরমিনিয়ো ও ফিলিপ কৌতিনিয়ো কমিয়ে এনেছেন বিশ্বাস তার। ২০০২ সালের ব্রাজিলের সর্বশেষ বিশ্বকাপজয়ী তারকা বলেছেন, ‘নেইমার খুব ভালো খেলছে। সে দলের খুব গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। কিন’ ব্রাজিল এখন আর শুধু নেইমার কিংবা একজনের ওপর নির্ভরশীল নয়। এখন দল অনেক ভারসাম্যপূর্ণ।’