রাউজান এখন শান্তির জনপদ : ফজলে করিম চৌধুরী এমপি

নিজস্ব প্রতিনিধি, রাউজান

রাউজানকে মডেল উপজেলা হিসেবে গড়ে তোলার জন্য একের পর এক উন্নয়ন কাজ করা হচ্ছে। এক সময় রাউজানে কোনো উন্নয়ন হয়নি। রাউজান সন্ত্রাসের জনপদ হিসাবে পরিচিত ছিল। রাউজানের মানুষের কাছে আমি ওয়াদা করেছিলাম, রাউজানকে সন্ত্রাসমুক্ত করবো।
অবহেলিত রাউজানের উন্নয়ন করবো। আওয়ামী লীগ সরকারের শাসনামলে আমি এলাকার এমপি হিসাবে জনগণের কাছে আমার দেওয়া ওয়াদা পালন করেছি। রাউজানকে সন্ত্রাসমুক্ত করেছি। রাউজানে একের পর এক উন্নয়ন কাজ করা হয়েছে। ১৪টি ইউনিয়নের মধ্যে ১৩টি ইউনিয়নে পরিষদ ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। নোয়াজিশপুর ইউনিয়ন পরিষদ ভবন নির্মানের কাজ শুরু করা হবে। পৌর ভবন, উপজেলা পরিষদ ভবন, থানা ভবন, ফায়ার স্টেশন, কবি নবীন সেন কমপ্লেক্স ভবন, ডাকবাংলো ভবন, ফজলুল কবির চৌধুরী অটেডিরিয়াম, ২৬ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র, শেখ কামাল কমপ্লেক্স ভবন, সূর্যসেন চত্বর, পুর্ব গুজরা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র ভবন, মুক্তিযুদ্ব স্মৃতিস্তম্ভ, পূর্ব গুজরা ভূমি অফিসম, দুটি উপশহর নির্মাণ করা হয়েছে । পূর্ব রাউজান এলাকায় শিল্পনগর, পূর্ব গহিরায় হাইওয়ে থানা ভবন, কারিগরি কলেজ, দক্ষিণ রাউজান থানা, দক্ষিণ রাউজানে আরো একটি ফায়ার স্টেশন, খাদ্য গুদাম, চুয়েটের পার্শ্বে আইটি পার্ক, পাহাড়তলীতে আ্ইটি ভিলেজ নির্মাণ করা হবে। আওয়ামী লীগ সরকারের শাসনামলে রাউজান রাস্তাঘাট নির্মাণ ও ব্রিজ-কালভার্টসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক উন্নয়ন করা হয়েছে। রাউজানের মানুষ যেন শান্তিতে বসবাস করতে পারে সেজন্য সন্ত্রাসমুক্ত রাউজান গড়ে তোলার পাশাপাশি ব্যাপক উন্নয়ন কাজ করা হয়েছে। ৯ জানুয়ারি সোমবার সকালে বাগোয়ান ইউনিয়নের নবনির্মিত ইউনিয়ন পরিষদ ভবন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি একথা বলেন। বাগোয়ান ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ভুপেশ বড়-য়ার সভাপতিত্বে ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মুক্তিযোদ্বা সুনীল চক্রবর্তী ও সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলামের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত ভবন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান এহেসানুল হায়দার বাবুল, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কামাল উদ্দিন আহম্মদ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ, উপজেলা সহকারী কমিশনার-ভূমি জোনায়েদ কবির সোহাগ, উপজেলা প্রকৌশলী কামাল উদ্দিন। উপসি’ত ছিলেন চেয়ারম্যান আবদুল রহমান চৌধুরী, প্রিয়তোষ চৌধুরী, আব্বাস উদ্দিন আহম্মদ, নুরুল আবছার বাঁশি, সরোয়ার্দী সিকদার, সাহাবউদ্দিন আরিফ, সুকুমার বড়-য়া, রোকন উদ্দিন, জসিম উদ্দিন হিরু, তসলিম উদ্দিন চৌধুরী, আবদুল জব্বার সোহেল।

আপনার মন্তব্য লিখুন