আরিয়ান স্মৃতি ফাউন্ডেশনের কার্যালয় উদ্বোধনে ফজলে করিম চৌধুরী এমপি

রাউজানকে মডেল উপজেলা হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিনিধি, রাউজান

মানুষের কল্যাণে রাউজানকে আধুনিক মডেল উপজেলা হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে । রাউজান একসময়ে সন্ত্রাসের জনপদ হিসেবে পরিচিত ছিল। সন্ত্রাসীদের হাতে এলাকার মানুষ জিম্মি ছিল । রাউজানে এখন কোন সন্ত্রাস নেই, নেই হানাহানি । গত দশ বৎসরে রাউজানে ব্যাপক উন্নয়ন কাজ করা হয়েছে । রাউজানে এখন শান্তির জনপদ হিসেবে পরিচিত হয়ে উঠেছে । রাউজানের এমন কোন স্থান নেই যেখানে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি । রাউজানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সরকারি অফিস আদালত,সড়কসমুহের ব্যাপক উন্নয়ন করা হয়েছে । চট্টগ্রাম রাঙামাটি সড়ক, চট্টগ্রাম কাপ্তাই সড়কের প্রশস্তকরণ করা হয়েছে। রাউজান ও হাটহাজারীর সীমানা দিয়ে প্রবাহিত হালদা নদীর ভাঙ্গন রোধে পানি উন্নয়ন বোর্ড ২শত ৭২ কোটি টাকা ব্যয়ে বাঁধ নির্মাণের কাজ শুরু করা হবে । রাউজানের চিকদাইরে দক্ষিণ সর্তা এলাকায় চট্টগ্রাম রাঙামাটি সড়কের পাশে কারিগরি কলেজ, পাওয়ার স্টেশন, রাউজান হাইওয়ে থানা ভবন, রাউজানের পুর্ব রাউজান এলাকায় শিল্প নগর নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়েছে । রাউজান থেকে চট্টগ্রাম শহর পর্যন্ত রেললাইন নির্মাণ করা হবে। রাউজানের সাধারণ মানুষের উন্নয়নেই আমার রাজনীতি । আমি রাউজানের সাধারণ মানুষের কল্যাণে কাজ করে যেতে চাই ।
গত কাল রাউজানের সুলতানপুর বেরুলিয়া কাসেম আলীর বাড়িতে আরিয়ান স্মৃতি ফাউন্ডেশনের কার্যালয় উদ্বোধন শেষে সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রেলপথ মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি একথা বলেন । আরবিয়ান স্মৃতি ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা আবু মোহাম্মদ মেম্বারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কামাল উদ্দিন আহম্মদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, রাউজান পৌরসভার প্যানেল মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ, রাউজান পৌরসভার কাউন্সিলর জানে আলম জনি, এডভোকেট সমীর দাশ গুপ্ত, মোহাম্মদ হারুন, শাকিল প্রমুখ ।