নজরুল ইসলামের ঈদ পুনর্মিলনী সভা

যাননি মহিউদ্দিন চৌধুরী

নিজস্ব প্রতিবেদক

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম নগরীর বন্দর-পতেঙ্গা আসনে (চট্টগ্রাম-১১) আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী নজরুল ইসলাম বাহাদুরের ঈদ পুনর্মিলনী সভায় অংশ নেননি নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী। নগরীর ২৮ নম্বর পাঠানটুলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক কাউন্সিলর বাহাদুরের পাঠানটুলীর বাসায় গতকাল বুধবার আয়োজিত এ সভায় তাঁর উপস্থিত থাকার কথা ছিল।
দুপুর পৌনে দুইটায় সভা শুরু হওয়ার আগে নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী জানান, সাবেক মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরী অসুস্থতার কারণে সভায় আসতে পারছেন না। দুপুর ১২টায় এই সভা শুরু হওয়ার কথা ছিল।
মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক মরহুম জহিরুল আলম দোভাষের নাতী মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম বাহাদুর আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নগরীর বন্দর-পতেঙ্গা আসনে (চট্টগ্রাম-১১) নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী। মহিউদ্দিন চৌধুরীর সাথে তার দীর্ঘ দিনের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক। কিন্তু এ অনুষ্ঠানে আসার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত আসেননি মহিউদ্দিন চৌধুরী।
সভায় অংশ নেন নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী। তিনি নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের ঘনিষ্ঠ। কিন্তু সভায় তিনি তার বক্তব্যে নগরীর রাস্তাঘাটের বেহাল দশার চিত্র তুলে ধরে বলেন, ‘মহিউদ্দিন চৌধুরী কয়েকদিনের জন্য হজে যাওয়ায় চট্টগ্রামে এসব বিষয় নিয়ে কথা বলার কোনো লোক ছিল না। চট্টগ্রামে এখনও মহিউদ্দিন চৌধুরীর বিকল্প নেতৃত্ব গড়ে উঠেনি।’
আগামী নির্বাচনে ভূঁইফোড়, হাইব্রিড ও ইয়াবা ব্যবসায়ী নেতাদের মনোনয়ন না দিতে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অনুরোধ জানিয়ে নঈম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘তৃণমূলের কর্মীদের সাথে সম্পর্ক রাখা নেতাদের মনোনয়ন দেয়া হলে আমরা তাকে নির্বাচিত করবো।’
সভায় সদরঘাট, ডবলমুরিং, হালিশহর, ইপিজেড, বন্দর ও পতেঙ্গা থানা আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল নেতারা অংশ নেন।