লঘুচাপ : উপকূলে বাড়তে পারে জোয়ারের উচ্চতা

নিজস্ব প্রতিবেদক

লঘুচাপের প্রভাবে দমকা বাতাস বইছে উপকূলে। তবে সেই দমকা বাতাসের সাথে জোয়ারের সময় স্বাভাবিকের চাইতে এত থেকে দুই ফুট অধিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাস হতে পারে। সাগরে অবস’ান নেয়া লঘুচাপটি মৌসুমী নিম্নচাপে রূপ নিতে পারে। এর প্রভাবে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে তিন নম্বর স’ানীয় সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এতে আজও থেমে থেমে বৃষ্টি হতে পারে।
পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগরে অবস’ানরত লঘুচাপটি প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিসের আবহাওয়াবিদ মেঘনাদ তঞ্চগ্যা বলেন, ‘পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগরে অবস’ানরত লঘুচাপটি মৌসুমী নিম্নচাপে রূপ নিতে পারে। তবে এটি ভারতে উড়িশ্যা ও অন্ধ্র উপকূলের কাছে রয়েছে।’
এর প্রভাবে উপকূলে কেমন প্রভাব পড়তে পারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এর প্রভাবে উপকূলে দমকা হাওয়া বইছে। ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৬০ কিলোমিটার বেগে বাতাস বইতে পারে। এছাড়া দেশের সমগ্র উপকূলীয় এলাকা ও চরসমূহে স্বাভাবিক জোয়ারের চাইতে এক থেকে দুই ফুট অধিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাস হতে পারে।
এদিকে লঘুচাপের প্রভাবে গতকাল নগরীতে বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টি আজও অব্যাহত থাকতে পারে বলে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে।
উল্লেখ্য, বছরের এ সময়ে সাগরে মৌসুমী লঘুচাপ ও নিম্নচাপের সৃষ্টি হয়ে থাকে। এর প্রভাবে উপকূলীয় এলাকায় বৃষ্টিপাত হয়ে থাকে। তবে এসবের প্রভাবে ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টির সম্ভাবনা অনেক কম থাকে।