যত্নে থাক দামি গয়না

দেউড়ি ডেস্ক
27913240_10155169097825373_3917860097113516612_o

ব্যবহারের পর শখের দামি গহনা মুছে তারপর বক্সে ভরুন। সবচেয়ে ভালো হয় একেকটা একেক বক্সে রাখলে। তাহলে আর দাগ পড়ার সম্ভাবনা থাকে না। কষ্টের টাকায় বানানো বা কেনা মূল্যবান গহনা ব্যবহারের পর যত্ন নিয়ে বাক্সে রাখছেন ঠিকই। তবে সঠিক পন’া জানা না থাকায় হয়ত নষ্ট হচ্ছে। যেমন- আসল মুক্তার গহনা ক্রয় করলে তা মলমল কাপড় দিয়ে পেঁচিয়ে রাখতে ভুলবেন না এবং গহনা পরার সময় একটু সময় নিয়ে বসে পরিধান করুন। কারণ এটা সহজে ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। গহনা যত্নে রাখার এরকম আরও কৌশল দিয়েছেন হায়দ্রাবাদের কিষাণদাস অ্যান্ড কো.য়ের প্রতীক্ষা কিষাণদাস এবং গহনা নকশাকার পূজা ভাস্বানি।
= গহনার উপর কখনও সরাসরি সুগন্ধি ব্যবহার করা যাবে না।
= কুন্দনের গহনা সবসময় স্পঞ্জ বা তুলায় পেঁচিয়ে প্লাস্টিকের বক্সে রাখতে হবে। কারণ এটা অন্য কিছুর সঙ্গে রাসায়নিক বিক্রিয়া করে এবং কালচে হয়ে যায়। এই ধরনের গহনা সব রকমের রাসায়নিক উপাদান থেকে দূরে রাখা উচিত।
= পান্না খুবই নাজুক পাথর। পান্নার তৈরি গহনা বসে পরিধান করা উচিত। না হলে পড়ে গিয়ে ভেঙে যেতে পারে।
= বসরা অর্থাৎ আসল মুক্তার অলঙ্কার মলমল কাপড় দিয়ে পেঁচিয়ে রাখতে হবে। গ্রীষ্মকালে মুক্তার গহনা এড়িয়ে চলুন। ঘামের কারণে এর উজ্জ্বলতা কমে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।
= ব্যবহারের পরে গহনা বক্সে তুলে রাখার আগে ভালো মতো মুছে রাখুন। সবচেয়ে ভালো হয় যদি বহু থাক বিশিষ্ট বক্সে আলাদাভাবে বিভিন্ন গহনা রাখা যায়। এতে গহনায় কোনো রকমের দাগ পড়ার সম্ভাবনা থাকে না।
= হীরা ছাড়া অন্য কোনো গহনা সাবান পানি দিয়ে দিয়ে পরিষ্কার করা ঠিক নয়।
= গহনার দাগ তুলতে রাবার ব্যবহার করতে পারেন।
= নির্দিষ্ট বিরতি দিয়ে গহনা পরিষ্কার করুন। এতে গহনা পরিষ্কার থাকবে এবং সবসময় নতুনের মতো উজ্জ্বল থাকবে। তবে সব ধরনের গহনা এই পদ্ধতিতে পরিষ্কার করা যাবে না।
= স্বর্ণ অনেক কোমল ধাতু এবং এতে সহজেই দাগ পড়ে। তাই সৌন্দর্য ধরে রাখতে নির্দিষ্ট সময় পর পর কারিগরের কাছ থেকে পলিশ করানো উচিত।
= রান্না, ব্যায়াম, সাঁতার অথবা ঘরের অন্যান্য কাজ করার সময় গহনা না পরাই ভালো। অতিরিক্ত আলো বা তাপ থেকে পাথরের গহনা যেমন- ‘কুঞ্জিত’ পরা এড়িয়ে চলুন। কেননা এতে গহনা ফ্যাকাসে বা মল্িন হয়ে যেতে পারে।
= মেইকআপ, সুগন্ধি ও লোশন ব্যবহারের পরে গহনা পরুন। কারণ এইসব উপাদানে সরাসরি সংস্পর্শে আসলে গহনার ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।