মোসাদ্দেকের ফর্মে সন্তুষ্ট নন নির্বাচকরা

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক

মোসাদ্দেক হোসেনের নড়বড়ে আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে লেগেছে আরেকটি বড় ধাক্কা। তরুণ প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান বাদ পড়েছেন বাংলাদেশ ওয়ানডে দল থেকে। অতীতেও তার বাদ পড়া নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে বেশ কবার। তবে এবারের বাদ পড়া স্রেফ ফর্ম না থাকার কারণেই, জানালেন অন্যতম নির্বাচক হাবিবুল বাশার। এমনিতে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হলেও বাংলাদেশের ওয়ানডে দলে মোসাদ্দেকের সুযোগ মেলে লোয়ার মিডল অর্ডারে। ওয়ানডে ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে সাত-আটে খেলেই দলে রেখেছেন বেশ ভালো অবদান। তবে এবারের এশিয়া কাপে ভালো করতে পারেননি মোটেও। তিনটি ম্যাচ খেলেছেন এশিয়া কাপে। প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে করেছেন ৫ বলে ১, শেষটিতে ভারতের বিপক্ষে ৪৩ বলে ১২। মাঝে আফগানিস্তানের বিপক্ষে অপরাজিত ২৬ করলেও ৬০ বলের ইনিংসটায় স্বচ্ছন্দে ছিলেন না একদমই। গতকাল মিরপুরে হাবিবুল সংবাদমাধ্যমকে জানালেন, ব্যাটিংটা ভালো হচ্ছে না বলেই জিম্বাবুয়ে সিরিজের ওয়ানডে দলে রাখা হয়নি মোসাদ্দেককে। ‘মোসাদ্দেকের ফর্ম নিয়ে আমরা সন’ষ্ট নই। সাত নম্বরে সে কার্যকর ব্যাটিং করতে পারছে না। বলতে পারেন, তাকে ব্রেক দেওয়া হচ্ছে। আশা করি সে ঘরোয়া ক্রিকেটে রানে ফিরবে। সামপ্রতিক সময়ে ওর ফর্মটা ভাল যাচ্ছে না।’ এশিয়া কাপের পর জাতীয় লিগের একটি রাউন্ডে খেলে বরিশালের হয়ে খুলনার বিপক্ষে ৭ রানে আউট হয়েছেন মোসাদ্দেক। মোসাদ্দেকের বাদ পড়া যেমন, তেমনি অনেকের কৌতুহল মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিনের ফেরা নিয়েও। দলে আছেন অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা পেস বোলিং অলরাউন্ডার আরিফুল হক। এরপরও নেওয়া হয়েছে সাইফকে। টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে অবশ্য ইঙ্গিতটা এসেছিল আগেই, তাদের চাওয়া বোলিং প্রধান অলরাউন্ডার। হাবিবুলের ব্যাখ্যায়ও উঠে এলো সেটিই।
‘দেখুন, আমরা একজন বোলিং অলরাউন্ডারের খোঁজে ছিলাম। সৌম্য বা আরিফুল মূলত ব্যাটিং অলরাউন্ডার। তাদের কাছ থেকে আমরা প্রথমে ব্যাটিং ও পরে বোলিং আশা করি। আমরা এমন একজনকে চাচ্ছি, যে কিনা ১০ ওভার বোলিং করতে পারবে ও দরকার হলে ব্যাটিং করবে। এজন্য আমরা সাইফ উদ্দিনকে এই সিরিজে নিয়েছি। যখন আমরা বাইরে খেলতে যাব, তখন আমাদের ব্যাটিংয়ের চেয়ে বোলিংয়ের দরকার বেশি লাগবে। আমাদের নিচের সারির ব্যাটিংটা একটু বেশি বড় হয়ে যায়, ৭ নম্বরের পরে আসলে আমাদের খুব একটা ব্যাটিং থাকে না। একজন বোলিং অলরাউন্ডার যদি আমরা সেট করতে পারি, তাহলে ভাল হবে।’ খবর বিডিনিউজ’র।