মেয়রের নির্দেশ : উচ্ছেদ করা হলো অবৈধ বিলবোর্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক

সিটি করপোশেনের সংশ্লিষ্ট বিভাগের চোখ ফাঁকি দিয়ে নগরের চকবাজার থানাধীন কলেজ রোডের কেয়ারী ইলিশিয়ামের উল্টোদিকে সিডিএ’র সৌন্দর্যবর্ধনকৃত লোহার ঘেরা দেওয়া জায়গার ভিতর ২০ ফুট বাই ১০ ফুট মোট ২০০ বর্গফুট এর একটি অবৈধ বিলবোর্ড তৈরি করা হয়। বিলবোর্ডটির কারণে ঢাকা পড়ে বেশ কয়েকটি ছোট-বড় গাছ এবং ঐ এলাকার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য। মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের ঘোষণা অনুযায়ী নগরে বিলবোর্ড স্থাপনের কোনোরকম অনুমতি নেই। অনুমতি না থাকা সত্ত্বেও কীভাবে আবারও উঠছে বিলবোর্ড এ নিয়ে ছিল নানা প্রশ্ন।
গত ১৩ ডিসেম্বর সুপ্রভাত বাংলাদেশ এর প্রথম পৃষ্ঠায় ‘আবারও উঠছে বিলবোর্ড’ শিরোনামে একটি সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশের পর ঐদিন সন্ধ্যায় বিলবোর্ডটি উচ্ছেদ করে সিটি করপোরেশন। এটি ছাড়াও ছোট-বড় আরও ৪টি বিলবোর্ড উচ্ছেদ করা হয়েছে।
অবৈধ বিলবোর্ডটি উচ্ছেদের ফলে এলাকাটি যেমন আগের সৌন্দর্য ফিরে পেয়েছে তেমনি এলাকার পার্শ্ববর্তী দোকানদার ও ব্যবসায়ীরা স্বস্তি প্রকাশ করেছেন।
গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে গিয়ে দেখা যায় বিলবোর্ডটির দুটি লোহার পাইপ কাটা অবস্থায় রয়েছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক প্রত্যক্ষদর্শী একজন দোকানদার জানান, বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সিটি করপোশেনের একটি গাড়ি ও কয়েজন লোক এসে বিলবোর্ডটি উচ্ছেদ করে নিয়ে যায়। এর পাশে একটি পুলিশের গাড়িও ছিল। বিলবোর্ডটি উচ্ছেদ হওয়ায় বেশ স্বস্তি লাগছে। বিলবোর্ডটি সৌন্দর্য নষ্ট করেছিল এলাকার।
এ বিষয়ে সিটি করপোরেশনের নির্বাহী প্রকৌশলী (যান্ত্রিক) সুদীপ বসাক বলেন, ‘মেয়রের মহোদয়ের নির্দেশে আমরা বুধবার সন্ধ্যায় অবৈধ বিলবোর্ডটি উচ্ছেদ করি। এছাড়া ছোট-বড় আরও ৪টি বিলবোর্ড উচ্ছেদ করা হয়েছে। নগরীতে যেখানে বিলবোর্ড দেখা যাবে সেখানেই উচ্ছেদ অভিযান চালানো হবে।’