মেধাবীরা দেশকে এগিয়ে নেবে

বিজ্ঞপ্তি

হাজী মোস্তফা বেগম স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষার পুরস্কার বিতরণ গত শুক্রবার নগরীর মুসলিম হলে অনুষ্ঠিত হয়। ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ হোসেন মুরাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ডায়মন্ড সিমেন্টের পরিচালক লায়ন হাকিম আলী।
সোহেল মুহাম্মদ ফখরুদ-দীন সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন ড. মোহাম্মদ সানাউলাহ, বিশেষ অতিথি ছিলেন ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের প্রখ্যাত লেখক ড. দেবব্রত দেব রায়, চট্টগ্রাম নাগরিক ফোরামের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার মনোয়ার হোসেন, ড. মোহাম্মদ সেলিম উদ্দিন খান, শিল্পী স্বর্নিমা রায়, ব্যাংকার দুলাল কান্তি বডুয়া, জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, নাগরিক ফোরামের মহাসচিব কামাল উদ্দিন, আহসানুল কবির, মো. ইউনুস কুতুবী, আবুল কাসেম, কধুরখীল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবুল কান্তি দাশ, একেএম আবু ইউসুফ, আবদুল মান্নান, ডা. মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন, অমর কান্তি দত্ত, ফারজানা নাসরিন, রাজিব দত্ত, মাস্টার রহিম উদ্দিন।
বক্তারা বলেন, শিক্ষানুরাগী ইঞ্জিনিয়ার হোসেন মুরাদ তার মাতার সমাজকর্ম ও শিক্ষা বিস্তারের আলোকিত পথকে ধরে রেখেছেন।
প্রধান অতিথির লায়ন হাকিম আলী বলেন, মেধাবী শিক্ষার্থীরা শিক্ষার উন্নয়নের মাধ্যমে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। আমাদের এই প্রজন্মের মেধাবী শিক্ষার্থীরা আধুনিক পৃথিবীর সাথে তাল মিলিয়ে যুগোপযোগী শিক্ষা অর্জনের মাধ্যমে বাঙালি জাতির ইতিহাসকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরবেন।
স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসায় আমাদের ছেলেমেয়েরা কি পড়ছে, কি করছে তা নজর রাখতে হবে। শিক্ষার্থীরা যেন বিপদগামী না হয় সেই বিষয়ে নজর দেওয়া জরুরি।
পরে ২৮০ জন কৃতী ছাত্রছাত্রীকে সম্মাননা সনদ, ক্রেস্ট, উপহার সামগ্রী ও নগদ অর্থ প্রদান করা হয়। সভাশেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।