মুজিব

বিপুল বড়ুয়া

সেই তর্জনি টলেনি সুতো শিরদাঁড়া টান টান
কারাগারে তাঁর কতোকাল কাটা উদ্যম অম্লান।

একটা স্বপ্ন বুকের ভেতর স্বাধীন স্বদেশ চাই
হিসাব নেবো বঞ্চনারই কড়ে গুনে পাই পাই।

এই তো মুজিব সেই তো মুজিব টুঙ্গিপাড়ার খোকা
ন্যায্য কথা একাই বলে মহাজেদি একরোখা।

কেউ তো থমকে পিছিয়েই গেছে কোথায় শঙ্কা তাঁর
বোধ বিশ্বাসে অটল পাহাড় সরাবে অন্ধকার।

নেমেছে পথে-প্রান্তরে ছুট বজ্রকণ্ঠে ডেকে
পাকিস্তানি খানের তখত ঠিকই দিয়েছে ঝেকে।

জেগেছে বাংলা-বীর বাঙালি সবাই উঠেছে তেতে
তাঁরই ডাকে দুর্বার জাগে স্বাধীনতা ফিরে পেতে।

সেই তো যুদ্ধ দীর্ঘ নয় মাস মুজিব দেখায় পথ
রক্ত-লজ্জা-অশ্রু ছাড়িয়ে আসে স্বাধীনতা রথ।

মুজিবের ডাকে ঠিক ঠিক মাঠে শত সহস্র হাত
যুদ্ধের মাঠে নির্ভয়ে ভাঙে খানদের বিষদাঁত।

ঘৃণ্য কজন হায়েনা সাজে পঁচাত্তরের ভোরে
তাঁকেই হারানো-হারানো অনেক বাঙালি মৃত্যু ঘোরে।

সেই বাংলা বাঙালি জেগেছে মুজিব জানাই ভক্তি
মুজিব আছো বুকে চিরদিন শোক আজ দেখো শক্তি।