ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে বক্তারা

মা ও শিশু হাসপাতাল সেবা খাতে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত সোনার বাংলা গড়তে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন চবি উপাচার্য এবং কলেজের গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।
গতকাল ১০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল মেডিকেল কলেজের ২০১৬-২০১৭ (১২তম ব্যাচ) শিক্ষাবর্ষের এম.বি.বি.এস কোর্সের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান। তিনি একাডেমিক ও প্রশাসনিক বিষয়সহ যাবতীয় বিষয়ে আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের জন্য ভর্তিকৃত নতুন ছাত্র-ছাত্রীদের অনুরোধ জানিয়ে এ প্রতিষ্ঠান থেকে গুণগত মানসম্মত চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করে দেশের সেবায় আত্মনিয়োগ করার অনুরোধ জানান।
ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথি আরও বলেন, এই দেশকে আরও সফলতা ও সম্ভাবনার দিকে তোমরাই নিয়ে যাবে।
কার্যনির্বাহী কমিটির প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক এ.এস.এম. ফজলুল করিম এর সভাপতিত্বে পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াতের মাধ্যমে লেকচার হল রুম-৪ এ এ প্রোগ্রাম শুরু হয়। কোরআন থেকে তেলোয়াত পাঠ করেন ২০১৫-২০১৬ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র ইকবাল মাহমুদ শাহ।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা অনুষদের ডিন এবং চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক সেলিম মো. জাহাঙ্গীর, কার্যনির্বাহী কমিটির ভাইস-প্রেসিডেন্ট ও কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ অধ্যাপক এম.এ. তাহের খান, ভাইস-প্রেসিডেন্ট ও কলেজের প্রতিষ্ঠতা ট্রেজারার এস.এম. মোরশেদ হোসাইন, কার্যনির্বাহী কমিটির ভাইস-প্রেসিডেন্ট ডা. এম. মাহফুজুর রহমান, কার্যনির্বাহী কমিটির জেনারেল সেক্রেটারি ডা. আঞ্জুমান-আরা-ইসলাম, গভর্নিং বডির ভাইস-চেয়ারম্যান/অনারারি ট্রেজারার মো. রেজাউল করিম আজাদ এবং কার্যনির্বাহী কমিটির ট্রেজারার ডা. মো. আরিফুল আমীন।
বক্তারা বলেন , ‘চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল সেবা খাতে বেসরকারি খাতের অংশগ্রহণের একটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। দেশে বিদেশে এ মেডিক্যাল কলেজের নাম ব্যাপকভাবে সমাদৃত হয়েছে। সফলতার বারটি বছর অতিক্রান্ত করছে-এই কলেজ। অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নের জন্য যারা নিরলস ও নিঃস্বার্থভাবে কাজ করে প্রয়াত হয়েছেন, তাদের কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করা হয়।
বক্তারা বলেন মেডিক্যাল কলেজসহ মোট পাঁচটি প্রজেক্ট দক্ষতা ও সফলতার সাথে বর্তমানে চালু রয়েছে। বাংলাদেশে যে সমস্ত বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজ রয়েছে, তার মধ্যে এই মেডিক্যাল কলেজ অন্যতম। মেডিক্যাল কলেজের পাশাপাশি চট্টগ্রাম মা-শিশু ও জেনারেল হাসপাতাল নামে ৬৫০ বেডের একটি পূর্ণাঙ্গ জেনারেল হাসপাতাল সংযুক্ত রয়েছে। ৮৫০ বেডের আধুনিক হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে এর নির্মাণ কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে এবং দেশের শীর্ষ স’ানীয় একটি প্রতিষ্ঠান হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হবে।
শিক্ষক/শিক্ষিকাদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন উপাধ্যক্ষ অসীম কুমার বড়-য়া, বায়োকেমিস্ট্রি বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক জেসমিন আবেদীন, একাডেমিক কো-অর্ডিনেটর অধ্যাপক সাদিক সাইফুর রহমান, বায়োকেমিস্ট্রি ও এনাটমি বিভাগের প্রভাষক যথাক্রমে ডা. নূসরাত কাওনাইন।
ডা. ইফ্ফাত চৌধুরীর উপস’াপনায় অনুষ্ঠানে অভিভাবকবৃন্দের পক্ষ হতে বক্তব্য রাখেন ডা. রেজাউল করিম, ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষের ছাত্রদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন ছৈয়দ মো. সাদমান এবং ছাত্রীদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন ফারিহা রহমান।
অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপসি’ত ছিলেন কার্যনির্বাহী কমিটির মেম্বার খায়েজ আহমেদ ভূঁইয়া, এস.এস. কুতুব উদ্দিন, পরিচালক (প্রশাসন) ডা. মো. নূরুল হক প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি

আপনার মন্তব্য লিখুন