ষড়যন্ত্র করলে কেউ ছাড় পাবে না : নওফেল

মাহতাব উদ্দিন বললেন, ‘আমি একজন নিরপেক্ষ মানুষ’

নিজস্ব প্রতিবেদক
02

নগরীতে একটি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে অংশ নিয়ে বক্তব্যে ‘প্রতিপক্ষের’ বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।
নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রয়াত এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর ছেলে ব্যারিস্টার নওফেল কোনো ব্যক্তি বিশেষের নাম সুনির্দিষ্টভাবে আখ্যায়িত না করে হুঁশিয়ার করে বলেন, ‘কেউ যদি আমাদের মধ্যে কোনো ষড়যন্ত্রের পরিকল্পনা করে তাকে ছাড় দেওয়া হবে না। আমরা কারও দয়ায় এই রাজনৈতিক দল করি না। আমাদের নেতা এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী থেকে শুরু করে সাধারণ সম্পাদক জননেতা ওবায়দুল কাদের আমরা সবাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কর্মী।’
গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় নগরীর সদরঘাট ইসলামিয়া কলেজ মাঠে প্রয়াত এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী স্মরণে আয়োজিত
শোকসভায় তিনি একথা বলেন।
৩০ নম্বর পূর্ব মাদারবাড়ি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের উদ্যোগে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। এতে নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনকে বিশেষ অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ করা হলেও তিনি আসেননি। নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী ও সহসভাপতি খোরশেদ আলম সুজন বিশেষ অতিথি হিসেবে অংশ নেন।
মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল তাঁর বক্তব্যের শেষ দিকে বলেন, ‘একটা বিষয় আছে। আমরা সবাই একটা রাজনৈতিক দলের আদর্শে উজ্জীবিত কর্মী। আমরা কারও দয়ায় এই রাজনৈতিক দল করি না। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে রাজনৈতিক দল করি। সুতরাং এখানে কেউ আমাদের মধ্যে বিভ্রান্তির চিন্তা কিংবা ষড়যন্ত্রের চেষ্টা করলে ছাড় পাবে না।’
হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি আরো বলেন, ‘কোনো রাজনৈতিক অপশক্তি যদি আমাদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করার চেষ্টা করে তাদেরকে ছাড় দেওয়া যাবে না।’
বিশেষ অতিথির বক্তব্য দিতে গিয়ে নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী মঞ্চে বসা ব্যারিস্টার নওফেলের দিকে তাকিয়ে বলেন, ‘আমি একজন নিরপেক্ষ মানুষ। আমি কোনো দলাদলিতে নেই। আমি সোজা মানুষ। কারো অনুকম্পায়, কারো দয়ায় আমি ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হইনি। আমাকে দায়িত্ব দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কাজেই সাংগঠনিক যে কোনো কাজ আমি ন্যায়ভাবে করবো। আমাকে নিয়ে দ্বিধা দ্বন্দ্বের কোনো কারণ নেই।’
৩০ নম্বর পূর্ব মাদারবাড়ি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জহির আহমদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন মহানগরের সহসভাপতি খোরশেদ আলম সুজন, উপদেষ্টা শেখ মোহাম্মদ ইসহাক, নগর আওয়ামী লীগ নেতা মশিউর রহমান, ও অমল মিত্র, সদরঘাট থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, নগর মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা ও সাবেক প্যানেল মেয়র রেখা আলম চৌধুরী প্রমুখ।