সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বললেন সাকিব

মানসিকভাবে ফুরফুরে না থাকলে খেলার মানেই হয় না

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক
01

সাদা পোশাকে আপাতত বিশ্রামে থাকতে চেয়েছেন সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশ দলের সেরা এই তারকা কেন এমনটি করলেন তা নিয়ে শুরু থেকেই ছিল নানা আলোচনা। বিসিবির কাছে পাঠানো আবেদন পত্রে স্পষ্ট করেই বলেছেন ক্লান্তির জন্যই আপাতত লংগার ভার্সনে খেলতে চান না তিনি। সেই সাকিব আল হাসানই মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে কথা বললেন।
বনানীতে নিজের বাসায় নিজের মুখেই জানালেন কেনও সাময়িক বিশ্রাম নিচ্ছেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার, ‘আসলে মানসিকভাবে ফুরফুরে না থাকলে খেলার কোনও মানেই হয় না। টেস্টে চার ইনিংসে আমাকে ব্যাট ও বল হাতে কিছু দায়িত্ব পালন করতে হয়। তাই সেটা ঠিক ভাবে করতে হলে বিশ্রামটা জরুরি ছিল।’ খবর বাংলা ট্রিবিউন।
সামনেই দক্ষিণ আফ্রিকা সফর। এই অবস্থায় সাকিবের না থাকা শূন্যতা তৈরি করবে বলেই মনে করেন অনেকে। অবশ্য এসব নিয়ে সাকিবের ভাবনা ভিন্ন, ‘কারও জন্যই কিছু আটকে থাকে না। আশা করি দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যারা সুযোগ পেয়েছে সবাই ভালো করবে।’
আপাতত টেস্ট থেকে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে বিশ্রাম থাকলেও সাকিবের ইচ্ছা সবার শেষেই লংগার ভার্সনের খেলা ছাড়ার। আর দীর্ঘ সময় খেলতে চান বলেই এই বিশ্রাম, ‘আমি ইচ্ছা সবার শেষে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিবো। তার আগে টি-টোয়েন্টি এবং ওয়ানডে থেকে অবসর নিবো।
কারণ আমি আরও ৫-৬ বছর ক্রিকেট খেলতে চাই। আর এই চাওয়াটা বারুবায়নের জন্য এই বিশ্রামের প্রয়োজন ছিল। আমার আবেদনে সাড়া দেওয়ায় বিসিবিকে ধন্যবাদ।’
সাকিব বিশ্রাম চেয়েছিলেন ৬ মাস। কিন্তু বোর্ডে তাকে ছুটি দিয়েছে তিন মাসের। সেই বিষয়টি জানিয়ে সাকিব আরও বলেন, ‘তিন মাসের বিশ্রামের পরই ফিরবো। আশা করি চনমনে হয়ে ফিরতে পারবো। এই অবসর সময়টাতে পরিবার সঙ্গে সময় কাটিয়ে নিজেকে ফুরফুরে করবো।’