জাতীয় শোক দিবস পালন

‘মানব মুক্তির ইতিহাসে বঙ্গবন্ধু স্বমহিমায় থাকবেন’

বিজ্ঞপ্তি

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৩তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে আলোচনাসভা মিলাদ মাহফিল ও রক্তদান কর্মসূচি পালন করা হয়।

বঙ্গবন্ধু পরিষদ বুড়িশ্চর-শিকারপুর ইউনিয়ন
জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু পরিষদ বুড়িশ্চর-শিকারপুর ইউনিয়নের উদ্যোগে হাটহাজারীস’ নজুমিয়াহাট এবি ব্যাংক চত্বরে বিকাল ৪টায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। এসময় তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন নিপীড়িত-নির্যাতিত গণমানুষের অবিসংবাদিত নেতা। এ মহান নেতা জীবন শুরু করেছিলেন বাংলার গণ মানুষের কল্যাণে নিজেকে আত্মনিয়োগের মধ্য দিয়ে। ৭ম শ্রেণীতে থাকাকালীন অসহায়-গরীব-মেধাবী শিক্ষার্থীদের সাহায্যের জন্য তিনি গঠন করেছিলেন মুসলিম সমিতি। শিক্ষা-সমাজ উন্নায়নমূলক বিভিন্ন কার্যক্রম কিশোর বঙ্গবন্ধুকে স্বদেশপ্রেমে উজ্জীবিত করেছিল। পরবর্তী জীবনে কর্মগুণে তিনি শুধুমাত্র বাঙালির মুক্তিকামী মানুষের নেতা হিসেবেই নন, বিশ্ব মানবতার মুক্তির দূত হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন। তাই ইতিহাস থেকে বঙ্গবন্ধুকে মুছে ফেলার সকল ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত ব্যর্থ হয়েছে। মানব মুক্তির ইতিহাসে বঙ্গবন্ধু আছেন, স্বমহিমায় থাকবেন।
উপাচার্য হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, মহাকালের মহানায়ক, স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স’পতি, রাজনীতির মহাকবি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবসহ ’৭৫ এর ১৫ আগস্ট ঘাতক হায়েনাদের হাতে নির্মমভাবে শহীদ বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্যবর্গ, মহান মুক্তিযুদ্ধে ত্রিশ লাখ শহীদ, জাতীয় চারনেতা ও অন্যান্য শহীদদের গভীর শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন।
বঙ্গবন্ধু পরিষদ বুড়িশ্চর-শিকারপুর ইউনিয়নের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মো. আবুল কালাম এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম ও যুগ্ম সম্পাদক মো. ফোরকান বাবু এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ এর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইউনুচ গণি চৌধুরী, সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মো. ইউনুছ, শাহ্ নেওয়াজ চৌধুরী, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. শামীম, উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মনজুরুল আলম ও হাটহাজারী উপজেলা আওয়ামী লীগ এর সাবেক জ্যেষ্ঠ সদস্য আজিজুল হক চৌধুরী।
এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিকারপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ এর সাবেক সভাপতি আবু আলম এবং উত্তর জেলা ছাত্রলীগ এর সাবেক স্কুল বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন মিন্টু।

চট্টগ্রাম কলেজ প্রাক্তন
ছাত্রলীগ পরিষদ
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে চট্টগ্রাম কলেজ প্রাক্তন ছাত্রলীগ পরিষদের উদ্যোগে ১৫ আগস্ট সকাল ১১টায় শিল্পকলা একাডেমিস’ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি ও চট্টগ্রাম কলেজস’ শহীদ মিনার চত্বরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।
এরপর নিহত সকল শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে চট্টগ্রাম কলেজ শহীদ মিনার চত্বরে এক মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
এসময় উপসি’ত ছিলেন সংগঠনের আহ্বায়ক নগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য আবদুল লতিফ টিপু, মো. ফরিদ, জামাল উদ্দিন চৌধুরী, সৈয়দা রিফাত আকতার নিশু, অধ্যক্ষ নাজমা ইয়াসমিন, নারী নেত্রী রুবা আহসান, সেলিম আকতার পিয়াল, জাবেদ সোলায়মান প্রমুখ।

ইউআইটিএস
জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৩টায় ইউনিভার্সিটি অব ইনফরমেশন টেকনোলজি অ্যান্ড সায়েন্সেস (ইউআইটিএস) এর অডিটরিয়ামে এক আলোচনা অনুষ্ঠান ও দোয়া মাহফিল অনষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ইউআইটিএস এর উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ সোলায়মান। বিশেষ অতিথি ছিলেন কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. এস আর হিলালী। আলোচক হিসেবে উপসি’ত ছিলেন ইউআইটিএস’র উপদেষ্টা বোর্ড অব ট্রাস্টিজ অধ্যাপক ড. কে এম সাইফুল ইসলাম খান, স্কুল অব সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এর ডিন অধ্যাপক ড. মাজহারুল হক।
স্কুল অব বিজনেসের ডিন অধ্যাপক ড. সিরাজ উদ্দীন আহমেদ এর সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ কামরুল হাসানের সঞ্চালনায় এ সময়
ইউআইটিএস-এর সকল শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপসি’ত ছিলেন।
রেফারিজ সমিতি
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম জেলা ফুটবল রেফারিজ অ্যাসোসিয়েশনের ব্যবস’াপনায় গতকাল শুক্রবার স্বেচ্ছায় রক্ত দান ও বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করা হয়।
এর আগে দেশের শান্তি ও মঙ্গল কামনায় এবং অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন এবং আজীবন সদস্যদের হজ যাত্রা উপলক্ষে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অ্যাসোসিয়েশনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. শহিদুল ইসলাম। এতে আরও উপসি’ত ছিলেন অ্যাসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি মঞ্জুরুল ইসলাম,দেবাশীষ বড়-য়া দেবু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হান্নান মিরন, নির্বাহী সদস্য এবং সাধারণ সদস্যরা।
উত্তর জেলা কৃষক লীগ
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে উত্তর জেলা কৃষক লীগের উদ্যোগে বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় সংগঠনের দোস্ত বিল্ডিংস’ কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা কমিটি সদস্য হুমায়ুন কবির মিলনের পরিচালনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে উপসি’ত ছিলেন, সংগঠনের সভাপতি নজরুল ইসলাম চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক সেলিম সাজ্জাদ, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক এম এন কাশেম, কৃষি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক শেখ ফরিদ, স’ানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক নুরুল আবছার চৌধুরী, সহ-দপ্তর সম্পাদক নাজিম উদ্দিন, কার্যকরী পরিষদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মাসুদ করিম, মো. আলী, মাহবুল আলম, মো. আবু জাফর, সামছুল আলম, হুমায়ুন কবির মিলন, জাহিদুল্লাহ চৌধুরী, জসিম উদ্দিন প্রমুখ।

বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলা কোতোয়ালী থানা
জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে ৩৪নম্বর পাথর ঘাটা ওয়ার্ড আশরাফ আলী রোডস’ এমকে টাওয়ারে বৃহস্পতিবার বিকাল ৪ টায় এক মিলাদ মাহফিল ও আলোচনা সভা কোতোয়ালী থানা বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলার সভাপতি গোপাল দাশ টিপুর সভাপতিত্বে ও ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন আজু’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চসিকের ভারপ্রাপ্ত মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী। বিশেষ অতিথি ছিলেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নব-নির্বাচিত আহ্বায়ক মুক্তিযোদ্ধা মো. আবু আবছার চৌধুরী, বিশেষ অতিথি ছিলেন কোতোয়ালী থানা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক দীপক ভট্টাচার্য, সুচিন্তা বাংলাদেশ চট্টগ্রাম বিভাগের যুগ্ম সমন্বয়ক ও মহানগর মানবাধিকার কমিশনের নির্বাহী সভাপতি আবু হাসনাত চৌধুরী, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আনিসুর রহমান ইমন, প্রধান বক্তা ছিলেন বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলা চট্টগ্রাম নগরের সাধারণ সম্পাদক ওসমান গণি মানিক। বিশেষ বক্তা হিসেবে আরও উপসি’ত ছিলেন পাথরঘাটা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা দীলিপ রুদ্র, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা ওমর ফারুক, বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলা চট্টগ্রাম নগরের আইন বিষয়ক সম্পাদক শান’নু রায়। এসময় আরও উপসি’ত ছিলেন দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগ নেতা শিমুল বড়-য়া, মো. রিদুওয়ান, নগর ছাত্রলীগ নেতা আনিসুর রহমান, ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা রানা দাশ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মঈনুল আলম, রাজু দাশ, ওয়ার্ড ছাত্রলীগ নেতা নেজাম উদ্দিন, শুভ দাশ, স্বদেশ দাশ, মো. রিয়াদ, মো. রাব্বি, প্রথম দাশ, শিপন দাশ, তুষার দাশ প্রমুখ। সভায় বক্তারা বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বাংলাদেশ অবিচ্ছেদ্য। স্বাধীন বাংলাদেশ সৃষ্টিতে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর
রহমানের অবদান অনস্বীকার্য। বঙ্গবন্ধুর জীবনাদর্শ প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে ছড়িয়ে দিতে হবে।

সরফভাটা সমিতি
জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে বুধবার সন্ধ্যায় সরফভাটা সমিতি চট্টগ্রামের উদ্যোগে এক আলোচনাসভা সংগঠনের বহদ্দারহাটস’ কার্যালয়ে সমিতির সভাপতি উপাধ্যক্ষ এ কে এম সুজা উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন চৌধুরীর সঞ্চালনায় সভায় বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন সমিতির সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলাম বেলাল, জ্যেষ্ঠ সদস্য এম আনোয়ারুল ইসলাম তালুকদার বাবুল, যুগ্ম সম্পাদক শফিউল আজম, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোছলেহ উদ্দিন চৌধুরী শাহীন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক রুবেল মাহমুদ, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মো. শাহাদৎ হোসেন সাজ্জাদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নিজামুল ইসলাম সরফী প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে দেশ গঠনের কাজে আত্মনিয়োগ করার আহ্বান জানান।
বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে সেদিন বাঙ্গালি জাতির সভ্যতাকে স্তব্ধ করে দিতে চেয়েছিল স্বাধীনতার পরাজিত শক্তি। কিন’ তাদের সেই স্বপ্ন ধূলিসাৎ করে দিয়ে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা আজ বিশ্বের উন্নত কাতারে নিয়ে গেছে দেশকে। সভা শেষে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত পরিচালনা করেন ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মো. শাহাদৎ হোসেন সাজ্জাদ।

ওমান বাংলাদেশ দূতাবাস
জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধুর ৪৩তম শাহাদত বার্ষিকী পালন উপলক্ষে বুধবার সন্ধ্যায় প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনী, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে ওমানে প্রবাসী বাংলাদেশিরা। চট্টগ্রামসহ বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি এতে অংশ নেন।
ওমানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম সারওয়ার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন। দূতাবাসের দ্বিতীয় সচিব মোহাম্মদ আনোয়ারের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম সমিতি ওমানের সভাপতি ও প্রবাসী সিআইপি ইয়াছিন চৌধুরী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ওমান শাখার সভাপতি আহমেদুর রহমান, উপদেষ্টা মো. নোমান ও কিবরিয়া কামাল, ওমান বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন ও সহ-সভাপতি আব্দুল ওয়াদুদ, বাংলাদেশ স্যোশাল ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এম এন আমিন এবং স’পতি মেহেদী ইফতেখার। উপসি’ত ছিলেন দূতালয় প্রধান আবুল হাসান মৃধা, প্রথম সচিব আবু সাইদ এবং শ্রম কাউন্সিলার সুজাউল হক।
রাষ্ট্রদূত গোলাম সারওয়ার বলেন, ‘সপরিবারে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে যারা ভেবেছিল যে মানচিত্র থেকে বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধুর নাম-নিশানা মুছে দেবে, তারা আজ ইতিহাসের আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত। কোন অপশক্তির পক্ষেই বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে ফেলা সম্ভব হয় নি এবং হবে না।’
তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর দেখিয়ে দেওয়া পথেই হাঁটছে আজকের বাংলাদেশ এবং যার নেতৃত্ব দিচ্ছেন জাতিরজনকের সুযোগ্যকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রতিটি বাঙালির জন্যেই এটি এক পরম সৌভাগ্যের ব্যাপার যে বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ এখন সারাবিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে।’ তিনি প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রূপকল্প ২০২১ বাস্তবায়ন ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে আহ্বান জানান।

ইছানগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাৎ বার্ষিকীতে কর্ণফুলী উপজেলার ইছানগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, খতমে কোরআন ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বুধবার সকাল ১১টায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শামীম উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি শাহেদুর রহমান শাহেদ।
বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সহ-সভাপতি সাদেক হোসেন, সদস্য আলী হায়দার, অভিভাবক কমিটির সভাপতি আবুল কাসেম, শিক্ষিকা সাদন বালা চক্রবর্তী, খালেদা খানম, রওনক জাহান, জুনু দাশ, পাপড়ি সেন প্রমুখ। দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন হাফেজ মাওলানা মো. ইলিয়াছ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি শাহেদুর রহমান শাহেদ বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম না হলে আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেতাম না। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ অনুস্মরণ করে ছাত্র-ছাত্রীরা বড় হয়ে আগামী দিনে দেশকে নেতৃত্ব দিতে হবে।