মানবাধিকার কমিশনের মানববন্ধনে আমিনুল হক বাবু নুসরাত হত্যাকারীদের দৃষ্টানত্মমূলক শাসিত্ম চাই

বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন বৃহত্তর চট্টগ্রাম আঞ্চলিক শাখা ও চট্টগ্রাম মহানগর দড়্গিণ শাখার যৌথ উদ্যোগে নুসরাত জাহান রাফিকে নৃশংসভাবে যৌন নিপীড়ন ও হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন পূর্বক প্রতিবাদ সমাবেশ চট্টগ্রাম মহানগর দড়্গিণের নির্বাহী সভাপতি শফিউল আলম রানার সভাপতিত্বে ১২ এপ্রিল চেরাগী পাহাড় চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের ডেপুটি গভর্নর আমিনুল হক বাবু। সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান উলস্নাহ বাহারের সঞ্চালনায় এতে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন আসাদুজ্জামান খান, শাহাদাত ইবনে মাজেজ, ইঞ্জিনিয়ার নুরম্নজ্জামান, মাসুদ পারভেজ, ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ ইমরান, ইমদাদ চৌধুরী, হাজী চান্দু মিয়া, ডা দিপক বড়ুয়া, সুদর্শন মন্টি, আবদুল হালিম, মোকসুদুর রহমান, ইসমাঈল হোসেন শিমুল, বখতেয়ার উদ্দিন, ইমতিয়াজ হোসেন, ডেল্টা লার্নিং সেন্টারের সিইও মো আলমগীর, তরম্নণ উদ্যোক্তা মো জাহাঙ্গীর, নারীবাদী সংগঠন মাতৃকা’র সাধারণ সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস লাকি, প্রচার সম্পাদক সুমাইয়া জেনি, স্বসিত্ম’র সভাপতি কাউছার জাহান, সত্যজিৎ বড়ুয়া, এনাম হোসেন হীরম্ন, কামরম্নল ইসলাম মানিক।
মানববন্ধনে আমিনুল হক বাবু বলেন, সবার অনত্মর জয় করে আমাদের কাঁদিয়ে চলে গেল মাদ্রাসা শিড়্গার্থী নুসরাত জাহান রাফী। সে বেঁচে থাকবে সকলের হৃদয়ে অনির্বাণ হয়ে। নুসরাত পেল শাহাদাতের মর্যাদা।