অভিভাবক সমাবেশে সুজন

মাদ্রাসা শিক্ষা এখন যুগানত্মকারী

বিজ্ঞপ্তি

মাদ্রাসা শিড়্গাকে মূলধারার সাথে যু্ক্ত করে এক যুগানত্মকারী দৃষ্টানত্ম স’াপন করেছে বর্তমান সরকার। মাদ্রাসা শিড়্গা এখন আর ইমাম, মোয়াজ্জেম বা মুদাররিস বানানোর প্রতিষ্ঠান নয়। এখন মাদ্রাসা ছাত্রদের মধ্য থেকে মেধাবীরা ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, জজ, ব্যারিস্টার হওয়ার সুযোগ পাচ্ছে।
গতকাল ২০ অক্টোবর দেশের প্রাচীন দ্বীনি শিড়্গা প্রতিষ্ঠান দারম্নল উলুম মাদ্রাসার শিড়্গক, অভিভাবক ছাত্রদের সম্মিলিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যদানকালে দারম্নল উলুম দাখিল মাদ্রাসার গভর্নিং কমিটির চেয়ারম্যান আলহাজ খোরশেদ আলম সুজন উপরের বক্তব্য প্রদান করেন। মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল মাহবুবুল আলম সিদ্দিকী। সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট ইসলামি চিনত্মাবিদ ও গবেষক তাহের ছোবহান, গভর্নিং কমিটির সহ-সভাপতি শাহাবুদ্দিন আহমদ, কাউন্সিলর সাইয়েদ গোলাম হায়দার মিন্টু। শিড়্গকদের পড়্গে বক্তব্য রাখেন মওলানা মহিউদ্দিন, মওলানা মুনির উদ্দিন। অভিভাবকদের পড়্গে বক্তব্য রাখেন জসিম উদ্দিন, ওয়াক্কাস উদ্দিন, হাফেজ আবু তাহের প্রমুখ।
প্রধান অতিথি আরও বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার দারম্নল উলুমের প্রাচীন মাদ্রাসা ভবন ভেঙে নতুন বহুতলাবিশিষ্ট মাদ্রাসা ভবনের জন্য ৪ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন। অচিরেই এর নির্মাণ কাজ শুরম্ন হতে যাচ্ছে। এই মাদ্রাসা মেধাবী ছাত্রদের মধ্যে বছরে প্রায় সাড়ে চার লড়্গ টাকা স্কলারশিপ দিচ্ছে। বর্তমানে সরকারের ধারাবাহিকতা থাকলে দারম্নল উলুম মাদ্রাসা অতীতের গৌরবময় সোনালী অতীতে ফিরে যাবে। তিনি অভিভাবকদের সনত্মানদের ব্যাপারে আরো মনোযোগী হওয়ার আহ্বান জানিয়ে কোন অবস’াতেই শিড়্গা জীবন শেষ হওয়ার আগে সনত্মানদের হাতে এনড্রয়েড ফোন না দেওয়ার অনুরোধ জানান।
তিনি শিড়্গকদের উদ্দেশে বলেন, সরকার আপনাদের শতভাগ বেতন ভাতা, বোনাস দিচ্ছে আপনারও শতভাগ শিড়্গা দিয়ে ছাত্রদের আগামী দিনের সুযোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলুন।
বিশেষ অতিথি তাহের ছোবহান বলেন, দারম্নল উলুম মাদ্রাসা সকল মাদ্রাসার মা। এখান থেকে অনেক ওলি, বুজুর্গ সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমান সরকার মাদ্রাসা শিড়্গা দ্বীন ও দুনিয়া দুইয়ের এক মহান সম্মিলন ঘটিয়েছেন।