মওদুদ-রিজভী যত বলবে, বিএনপির ভোট তত কমবে: কাদের

সুপ্রভাত ডেস্ক

বিএনপি নেতা মওদুদ আহমেদ ও রুহুল কবির রিজভী যত কথা বলবে দলটির প্রতি জনসমর্থন তত কমবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। গতকাল শুক্রবার বিকালে রাজধানীর গুলিস্তানের বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভায় একথা বলেন তিনি। খবর বিডিনিউজ।
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘মওদুদ আহমেদ এবং রিজভী- এই দুইটা যত বেশি কথা বলবে বিএনপির ভোট তত বেশি কমবে। এ জন্য আমরা বলি এরা অন্যায় করুক, অপরাধ করুক, যত বেশি বাজে কথা বলুক, এদেরকে গ্রেফতার করার দরকার নেই, এরা বাইরেই থাকুক। ‘এরা বাইরে থাকলে আওয়ামী লীগের জন্য ভালো। এদের বাজে বাজে কথাগুলো জনগণ থেকে বিএনপিকে সরিয়ে দিচ্ছে। আর বিএনপির বড় বড় কথার জবাব দিব জনগণের শক্তি দিয়ে ।‘
তবে আওয়ামী লীগও সংকটমুক্ত নয় বলে মন্তব্য করে কাদের বলেন, ‘এখনো ষড়যন্ত্র হচ্ছে। কিন’ আমাদের শক্তি হচ্ছে, দেশের সবচাইতে জনপ্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনা। তার সময়ে দেশের উন্নয়ন ও তার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দেশের জনগণ এতটাই খুশি যে বাংলাদেশের জনগণ এখন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ।‘ ‘জঙ্গিবাদী গোষ্ঠী আগের চেয়ে অনেকটাই দুর্বল’ হলেও একেবারে নির্মূল না হওয়াকে সংকট হিসাবে দেখছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।
‘তারা একবারেই তাদের পথ থেকে সরে গেছে এই কথাটা মনে করার কারণ নেই। এই মুহূর্তে মনে হচ্ছে তারা একবারে নিস্ক্রিয় কিন’ বাস্তবে আমার কাছে প্রতি মূহূর্তে মনে হয় এই জঙ্গিবাদী গোষ্ঠী তলে তলে আরও ভয়াবহ কোনো আক্রমমণের প্রস’তি নিচ্ছে কি না- এটা আজকেও আমাদের ভাবতে হবে।’ বিএনপি শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের নামে অশান্তির ক্ষেত্র সৃষ্টি করছে দাবি করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘যেই দল হাই কোর্টের সামনে প্রিজন ভ্যানে হামলা করেছে। তারা যখন বলে, আমরা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি- এটা কি কারো বিশ্বাস হয়? এই বাংলাদেশের মানুষ বিশ্বাস করে?
‘আমরা (আওয়ামী লীগ) আগের চেয়ে সতর্ক এবং আইন প্রয়োগকারী সংস’াও আগের চেয়ে তৎপর । যেই কারণে এই অপশক্তি সাহস পাচ্ছে না। ওই হাই কোর্টের সামনের ন্যক্কারজনক ঘটানার পুনরাবৃত্তির সাহস তাদের নেই।’ এ সময় বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে কাদের বলেন, ‘মওদুদ আহমেদ বলেন বেগম জিয়া জেলে থাকলে নাকি বিএনপির দশ লাখ ভোট বাড়ে, আর আওয়ামী লীগের দশ লাখ ভোট কমবে। ‘শেখ হাসিনা জনপ্রিয়তার তুঙ্গে পৌঁছেছেন, তার ধারে কাছে যাওয়ার ক্ষমতা বিএনপির নেই। দেখুন, দুর্নীতিবাজদের পক্ষে বাংলাদেশের জনগণ যাবে না। শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তার জন্য আওয়ামী লীগের প্রতিদিন দশ লাখ করে ভোট বাড়ছে, আর দুর্নীতির জন্য বিএনপির দশ লাখ ভোট কমছে। দুর্নীতিবাজদের পক্ষে দেশের লোক থাকে না।’
মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ ও দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ বক্তব্য দেন।