ভিন্ন পথের যাত্রী

সাঈদুল আরেফীন

কেমন আছো বলতে পারলেই ভালো লাগতো

অভিশাপ নিইনি অভিশাপ দিইনি চেয়েছিলাম

প্রগাঢ় ভালোবাসা

তুমি নেই; শূন্য আমি অচেনা আপন আলোয়,

সুখী হতে চেয়েও পারোনি, পারলে না তুমি?

শৈশবের জমানো কষ্টগুলো এখনো আঁকড়ে আছো তুমি,

যদি জিজ্ঞাসু দৃষ্টিতে পড়ো, তাহলে প্রশ্ন রাখি মনের ভেতর

কোথায় তুমি আজ? শূন্যতার প্রহরগুলো কেটে গেছে,

দুষ্টু কতো মেঘ উড়ে চলে গেছে, দুঃখের গহীন দহনে

পুড়ে ছাই হয়েছে কতো, তবুও

হৃদয় সীমানেত্মর দখিন দুয়ার খোলা রেখেছি কতোকাল

বেদনাশ্রয়ী কষ্টগুলো মাঝে মাঝেই টোকা দিয়ে গেছে,

এখানো অলীক সময়ে ঝিরঝির হাওয়া বইছে শুধু,

বাধাহীন গতিপথ পাড়ি দিচ্ছি অবিরত আমি তুমি দুজন

তুমি নেই; তুমি নেই; শুধু তুমি নেই, নেই??

অভিশাপের আগুনে জ্বলতে জ্বালাতে চাইনি কেউই,

বাঁধাবন্ধনহীন উল্টোপথের যাত্রী ছিলাম, আছি

অভিশাপ দিইনি, অবিচারের নেশায় ছুটিনি, তুমি আমি

ভিন্ন পথের যাত্রী ছিলাম, জীবন যন্ত্রণাটুকু নিয়েছি,

নেবো কষ্ট, কষ্ট আরো কষ্ট হৃদয়ে রক্তড়্গরণের মতো

অঙ্গীকার করে গেলাম