ভাড়ার টাকায় রেডি ফ্ল্যাট এবং…

বিনোদন প্রতিবেদক

শাহাদাৎ একজন আধা সরকারি অফিসের তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী। স্ত্রী শিখা গৃহিণী। ভাড়াটে হিসেবে দুজনে থাকেন পুরান ঢাকার আগামসি লেনে। টানাপড়েনের সংসারে স্বাদ, আহ্লাদ বিসর্জন দিতে হয় প্রতিনিয়ত। এই শহরে তাদের কোনও দিন নিজের একটা ঘর হবে না। সেটা তারা জেনে গেছেন! কিন’ একদিন একটা বিজ্ঞাপন তাদের প্রলুব্ধ করে। যেখানে বলা হয়- ঘর ভাড়ার টাকায় রেডি ফ্ল্যাট পাওয়া যাবে! কিন’ সেই ফ্ল্যাট পেতে হলে একটা ডাউন পেমেন্ট দিতে হবে। অনেক কষ্টে এই দম্পতি সেই টাকা জোগাড় করেন। এবং তারা স্বপ্ন দেখতে শুরু করেন, নিজেদের ফ্ল্যাটের জানালা, দোলনা, বাগান সাজানোর বিষয় নিয়ে। তো যেদিন ফ্ল্যাটটা বুঝে পাওয়ার কথা সেদিন ঐ রিয়েল-এস্টেট কোম্পানি উধাও! এবং শাহাদাৎ-শিখা দম্পতি কিছু সময়ের জন্যে ভেঙে পড়লেও এই হেরে যাওয়াটা তারা উৎসবের মতো করে নেয়! গল্পটা বেশ করুণ। নাগরিক বাস্তবতাও। শিক্ষণীয় তো বটেই। এমনই গল্প চিত্রনাট্যে বেঁধেছেন রায়হান আসাদ। আর সেটিকে টিভি নাটকের দৃশ্যে প্রাণ দিয়েছেন নির্মাতা মাহমুদ দিদার। কাজটির নাম রেখেছেন, ‘এই শহরে আমাদের কোনও ঘর নেই…’। এর দৃশ্যগুলোতে দেখা যাবে আনিসুর রহমান মিলন, মীম মান্তাশা, জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায় ও শম্পা রেজার চোখ ভেজানো অভিনয়।

ভিন্ন গল্পের নির্মাতা মাহমুদ দিদার নাটকটি প্রসঙ্গে বললেন এভাবে, ‘এখানে আসলে আমাদের মতো নিম্নবিত্তদের জীবন, সংগ্রাম, অভাবের ভেতর দিয়ে কিছু প্রেম ও প্রতারণার গল্প তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। এখানে যেমন দেখবো সব হারিয়েও শাহাদাৎ-শিখা দম্পতি কল্পনায় কীভাবে বাড়িওয়ালা হয়ে ওঠে, বৃষ্টিতে ভিজে, জানালার পাশে দাঁড়িয়ে বাতাস অনুভব করতে থাকে। এই হেরে যাওয়াটাকে তারা আসলে উদযাপন করে। প্রায় সর্বস্ব হারানো দুজন মানুষ একদিন বৃষ্টিতে ভিজে গ্রামের দিকে ফিরে যেতে থাকে। যেতে যেতে পরস্পরকে বলতে থাকে, তারা মূলত জিতে গেছে। তাদের এই হাসিমুখ আমাকে আশাবাদী করে। আশাকরি দর্শকরাও আশাবাদী হবেন।’
জানা গেছে ‘এই শহরে আমাদের কোনও ঘর নেই…’ নাটকটি দেখানো হবে ঈদের তৃতীয় দিন বিকাল ৪টা ৩০ মিনিটে, চ্যানেল আইতে।