ব্র্যাডম্যানদের পাশে ধাওয়ান

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক

রঙিন জার্সিতে ‘ভয়ঙ্কর’ হলেও রশিদ খান টেস্ট অভিষেকে ভয় ধরাতে পারলেন না প্রতিপক্ষের মনে। ভারতের বিপক্ষে ইতিহাসের প্রথম টেস্টে আফগান বোলাররা রীতিমতো অসহায়। তাতে লাঞ্চের আগে সেঞ্চুরি করে মাইলফলকে জায়গা করে নিলেন ভারতীয় ওপেনার শিখর ধাওয়ান। গতকাল শুরু একমাত্র টেস্টের প্রথম দিন ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে বিরল এই কীর্তি গড়লেন ভারতের এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। অবশ্য তিন অঙ্কের ঘরে রান করে লাঞ্চে যাওয়া প্রথম ভারতীয় ব্যাটসম্যান তিনিই।
বেঙ্গালুরুর চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নামে ভারত। আফগানিস্তানের এই ঐতিহাসিক টেস্টে ধাওয়ান উদ্বোধনী জুটি গড়েন মুরালি বিজয়ের সঙ্গে। আজিঙ্কা রাহানের নেতৃত্বে এই ম্যাচের প্রথম সেশনে কোনও হোঁচট খায়নি স্বাগতিকরা। আফগান বোলারদের অসহায় করে ৪৭ বলে প্রথম পঞ্চাশ করেন ধাওয়ান। দুই স্পিনার রশিদ ও মুজিব উর রহমানকে পাত্তাই দেননি তিনি। রশিদ তার প্রথম ওভারেই আইপিএল সতীর্থকে তিনটি বাউন্ডারি দেন।
ধাওয়ান তার সপ্তম টেস্ট সেঞ্চুরি করেন ৮৭ বল খেলে, তার দ্বিতীয় দ্রুততম। ২৬তম ওভারের শেষ দুই বলে রশিদকে দুটি চার মেরে এই ঐতিহাসিক ম্যাচে ইতিহাস গড়েন ভারতের ওপেনার। ৯৬ বলে ১৯ চার ও ৩ ছয়ে ১০৭ রানে অপরাজিত থেকে মধ্যাহ্নভোজে গেছেন ধাওয়ান। লাঞ্চের আগে ২৭ ওভারে কোনও উইকেট না হারিয়ে ১৫৮ রান করে স্বাগতিকরা।
কোনো টেস্ট ম্যাচে প্রথমবার লাঞ্চের আগে সেঞ্চুরির ঘটনা ঘটেছিল ১৯০২ সালে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যানচেস্টারে অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টর ট্রাম্পার ১০৩ রানে অপরাজিত ছিলেন। ১৯২৬ ও ১৯৩০ সালে একই দলের বিপক্ষে এই কীর্তি গড়েন অস্ট্রেলিয়ার চার্লি ম্যাকার্টনে ও ডোনাল্ড ব্র্যাডম্যান। এর প্রায় চার দশক পর ১৯৭৬ সালে পাকিস্তানের মাজিদ খান এই মাইলফলকে পৌঁছান। তারও চার দশক পর ২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড ওয়ার্নার যোগ দেন এই কাতারে। খবর বাংলাট্রিবিউন’র।