বীরকন্যা প্রীতিলতার আত্মাহুতি দিবস পালন

বিজ্ঞপ্তি

উত্তর কাট্টলী আলহাজ্ব মোসত্মফা-হাকিম কলেজের ব্যবস’াপনায় ও সাবেক মেয়র মনজুর আলমের উদ্যোগে গতকাল সকাল ১০ টায় পাহাড়তলী রেলওয়ে স্কুল সংলগ্ন বীরকন্যা প্রীতিলতার ভাস্কর্যে প্রীতিলতার ৮৭তম আত্মহুতি দিবসে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি  ছিলেন উত্তর কাট্টলী আলহাজ মোসত্মফা-হাকিম কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক মেয়র এম মনজুর আলম। এতে প্রধান অতিথি বলেন, ‘১৯৩২ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর। তখন দেশে চলছে ব্রিটিশ শাসন।  শোষণ আর শাসনের নানা কর্মকান্ডে মানুষ ছিল অতীষ্ঠ। এ সময় মাস্টারদা সূর্য সেনের নির্দেশে রাতে সামরিক পোশাকে পাহাড়তলী ইউরোপীয়ান ক্লাবে আক্রমণ করতে যায় ব্রিটিশবিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম নারী মুক্তিযোদ্ধা ও প্রথম বিপস্নবী নারী শহীদ বীরকন্যা প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার। দেশপ্রেমিক এই বীরকন্যার প্রতি আজ আমাদের শ্রদ্ধাঞ্জলি।’ অনুষ্ঠানে আরো উপসি’ত ছিলেন উত্তর কাট্টলী আলহাজ মোসত্মফা-হাকিম কলেজের অধ্যড়্গ মোহাম্মদ আলমগীর, উপাধ্যড়্গ মাহফুজুল হক চৌধুরী, অধ্যাপক ড. বিকাশ কানিত্ম মজুমদার, অসীম চক্রবর্তী, সবুজ কুমার দত্ত, নুর মোহাম্মদ প্রমুখ।

চট্টল ইয়ূথ কয়ার

অবকাঠামো ঠিক থাকলেও ক্লাবটি প্রীতিলতার স্মৃতি রড়্গার্থে অবমুক্ত করার জন্য চট্টল ইয়ূথ কয়ারের পড়্গ থেকে ২০১১ সাল থেকে রেল কর্তৃপড়্গের কাছে দাবি জানালেও আজো তা বাসত্মবায়ন করা হয়নি। বিষয়টি একেবারে ছোট কিন’ মানসিকতার অভাব।

প্রীতিলতার আত্মাহুতি দিবস উপলড়্গে চট্টল ইয়ূথ কয়ারের দু’দিনের কর্মসূচির প্রথম দিন ২২ সেপ্টেম্বর বিকাল ৩টায় পাহাড়তলী কিন্ডার গার্টেন স্কুলে চিত্রাংকন অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী দিনে কয়ার মহাসচিব অরম্নণ চন্দ্র বণিক উপরের বক্তব্য রাখেন।

হিজল বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্কুল শিড়্গক নার্গিস ফাতেমা, কহিনুর আকতারসহ চট্টল ইয়ূথ কয়ারের কেন্দ্রীয় সদস্যবৃন্দ।