দেখতে না পারার আক্ষেপ অনেকের

বিশ্বকাপ ক্রিকেট ট্রফি নিয়ে উচ্ছ্বাস

নিজস্ব ক্রীড়া প্রতিবেদক

স্বপ্নের সোনালি ট্রফি দেখতে স্টেডিয়াম পাড়ায় ভিড় করেন ক্রিকেটপ্রেমী মানুষ। লাইন ধরে দাঁড়িয়ে তারা স্বচ্ছ বাক্সে ঘেরা ট্রফি দেখেন। অনেকে স্বপ্নের ট্রফি সামনে পেয়ে তুলে রাখেন সেলফি। চোখে-মুখে স্বপ্ন পূরণের উচ্ছ্বাস। তবে বিকেলে বিভিন্ন বয়সের বিপুল সংখ্যক ক্রিকেটপ্রেমী এম এ আজিজ স্টেডিয়ামের সামনে উপসি’ত হয়ে ট্রফির দেখা না পেয়ে হতাশা ও ক্ষোভ নিয়ে ফিরে যান। পূর্ব ঘোষণায় স’ানীয় কর্তৃপক্ষের পক্ষ হতে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ট্রফি সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে বলা হলেও সাড়ে চারটায় ট্রফি নিয়ে রেডিসনে চলে যান কর্মকর্তারা। এ ব্যাপারে যোগাযোগ করলে ক্রিকেট বোর্ডের কর্মকর্তা ভেন্যু ম্যনেজার ফজলে বারী খান রুবেল জানান রেডিসনের ছাদে দিনের আলোয় ভিডিও করার জন্য নির্ধারিত সময়ের আগেই ট্রফি নেয়া হয়।
আগামী বিশ্বকাপ ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপের ট্রফি বিভিন্ন দেশ ঘুরে এখন বাংলাদেশে অবস’ান করছে। এরমধ্যে ট্রফি ঢাকা ও সিলেট শহর ঘুরে গতকাল চট্টগ্রাম শহরে আসে। সকালের ফ্লাইটে চট্টগ্রামে অবতরণ করে সরাসরি চলে আসে এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে। এ উপলক্ষে স্টেডিয়ামের জিমন্যাসিয়াম সংলগ্ন টেনিস কোর্টে সাজানো এক মঞ্চে ট্রফিটি সকাল ১০টা ৩০ মিনিট থেকে আধা ঘণ্টা ইউনিসেফের আয়োজনে নগরের সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়। তারা ট্রফি দেখার পাশাপাশি ফটোসেশনে অংশ নিয়েছে। এরপর সকাল ১১টা থেকে সকলের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সকালে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, বিসিবি মিডিয়া কমিটির সদস্য সচিব আলী আব্বাস, সাবেক জাতীয় ক্রিকেটার আফতাব আহমেদ ও নাফিজ ইকবাল উপসি’ত ছিলেন। ২০১৯ সালের ৩০ মে থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত ইংল্যান্ডের বিভিন্ন শহরে অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বকাপ ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপের। সেই আসরের প্রায় ১১ কেজি ওজনের সুদৃশ্য চ্যাম্পিয়ন ট্রফিটি পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ ঘুরে এখন বাংলাদেশে অবস’ান করছে। ।
উল্লেখ্য ১০ দলের বিশ্বকাপ হলেও এই ট্রফি ঘুরবে ৫টি মহাদেশের ২১টি দেশের ৬০টি শহরে। বিশ্বের ৬ নম্বর দেশ হিসেবে ট্রফিটি এখন বাংলাদেশে রয়েছে। বিশ্বকাপ ট্রফির ইতিহাসে সবচেয়ে লম্বা পরিভ্রমণ এবারই। গত ২৭ আগস্ট দুবাইয়ে আইসিসির সদর দপ্তর থেকে শুরু হয়েছে ট্রফির ভ্রমণ। ক্রিকেটকে ছড়িয়ে দিতে প্রথাগত ক্রিকেট খেলুড়ে দেশের বাইরের অনেক দেশেও এবার যাচ্ছে বিশ্বকাপের ট্রফি। বাংলাদেশে আসার আগে ট্রফিটি ঘুরে এসেছে ওমান, যুক্তরাষ্ট্র, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, শ্রীলংকা ও পাকিস্তান। বাংলাদেশ থেকে ট্রফিটি নেপাল হয়ে ভারত, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, কেনিয়া, রুয়ান্ডা, নাইজিরিয়া, ফ্রান্স, বেলজিয়াম, নেদারল্যান্ডস ও জার্মানিতে যাবে। আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি ট্রফিটি বিশ্বকাপের স্বাগতিক ইংল্যান্ডে পৌঁছানোর কথা রয়েছে।