বিভিন্ন অফার বাণিজ্য মেলায় সরব ৫ ফার্নিচার কোম্পানি

মোহাম্মদ আলী
29356194_2113481375343712_5678848910307622912_n

প্রায় ২০ বাই ১০ ফুটের একটি ঘর। মেঝেতে বসার জন্য কয়েক সারি কুশন। পূর্বের দেয়ালে টাঙানো বড় পর্দায় প্রজেক্টরে ভেসে উঠছে ভার্চুয়াল ডিসপ্লে। আগ্রহী ক্রেতারা মন দিয়ে দেখছেন পছন্দের বাহারি ফার্নিচার। ১০ মিনিটের জার্নি শেষে কেউ কেউ সেখান থেকে ঠিক করছেন নিজেদের প্রয়োজনীয় আসবাব। বলছিলাম প্রায় নয়টি দেশে আসবাবপত্র রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান হাতিল ফার্নিচারের কথা। এবারের ২৬তম চট্টগ্রাম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় অংশগ্রহণ করেছে ফার্নিচার প্রস’তকারক এই প্রতিষ্ঠানটি।
দেশে এই প্রথমবার কোনো প্রতিষ্ঠান নিজেদের পণ্যে দর্শনার্থীদের আকৃষ্ট করার জন্য এমন ভার্চুয়াল শোরুম দিয়েছেন বলে জানালেন হাতিলের ডেপুটি ম্যানেজার লায়লা ইসরাত জাহান। তিনি সুপ্রভাত বাংলাদেশকে বলেন, ‘আমাদের এক একটা আসবাবের অনেকগুলো ডিজাইন ও কালার রয়েছে। সবগুলো আসবাব স্বল্প পরিধির প্যাভিলিয়নে প্রদর্শন করা সম্ভব না। একটা প্রদর্শন করলে অন্যটা স্টোরে রেখে দিতে হয়। তাই দর্শনার্থীরা সবগুলো আসবাব ও কালার দেখতে পারে না। এজন্যই আমাদের এই ভার্চুয়াল শোরুম।’
লায়লা ইসরাত জাহান জানান, হাতিল প্রায় ২১ হাজার বর্গফুটের তিন তলা বিশিষ্ট নিজেদের প্যাভিলিয়ন সাজিয়েছে খাট, সোফা, ডাইনিং টেবিল, রকিং চেয়ার, ডিভান, লবি সেট ইত্যাদি আসবাব দিয়ে। মেলা উপলক্ষে প্রতিটি ফার্নিচারেই আকর্ষণীয় মূল্যছাড় রয়েছে। এছাড়া বেডরুম-সেটে রয়েছে ১২ শতাংশ করে মূল্যছাড়। হাতিল প্যাভিলিয়ন এবং হাতিল চট্টগ্রামের শো-রুমের জন্য মেলা চলাকালে এ অফার প্রযোজ্য। এই প্যাভিলিয়নে ডিজাইন ভেদে সোফ বিক্রয় হচ্ছে ২৪ হাজার থেকে এক লাখ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত। ডাইনিং বিক্রয় হচ্ছে ৩৪ হাজার থেকে ৮০ হাজার টাকা পর্যন্ত। খাট বিক্রয় হচ্ছে ৩৫ হাজার থেকে ৫০ হাজার টাকায়। এছাড়া বেডরুম কম্বোসেটের দাম রাখা হয়েছে ৭৮ হাজার থেকে এক লাখ সাত হাজার টাকা পর্যন্ত।
হাতিল ছাড়াও এবারের বাণিজ্য মেলায় মূল্যছাড়ের অফার নিয়ে সরব হয়েছে আরো তিনটি ফার্নিচার কোম্পানি। মেলায় ৮০ লাখ টাকা থেকে এক লাখ ৩০ হাজার টাকার মধ্যে নানা ডিজাইনের বেডরুম সেট বিক্রি করছে ব্রাদার্স ফার্নিচার। পণ্যভেদে ক্রেতাদের ৫ থেকে ১৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। এছাড়া ক্রেতারা চাইলে ব্যাংকের মাধ্যমে কিস্তিতে ফার্নিচার কিনতে পারবেন বলে জানিয়েছেন ব্রাদার্স ফার্নিচারের সহকারী ম্যানেজার মো. রাশেদুল ইসলাম।
সম্পূর্ণ সেগুন ও মেহগনি কাঠের তৈরি একাধিক ডিজাইনের আসবাব দিয়ে নিজেদের প্যাভিলিয়ন সাজিয়েছে আকতার ফার্নিচার। তারা সবধরনের আসবাবের পের ১২ শতাংশ পর্যন্ত মূল্যছাড় দিচ্ছে ক্রেতাদের।
বিক্রয়কর্মী কামরুল ইসলাম বলেন, ‘আমাদের সবধরনের আসবাব নিজেদের মানিকগঞ্জের কারখানায় তৈরি। প্যাভিলিয়নে অন্যদেশ থেকে আমদানি করা কোনো ফার্নিচার রাখা হয়নি। আমরা প্রায় দশটি নতুন ডিজাইনের খাট মেলায় প্রদর্শন করেছি। এগুলো ৩৫ হাজার থেকে এক লাখ ৫০ হাজার টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে। ডাইনিং সেট আছে সাত থেকে আট প্রকারের। এগুলোর দাম রাখা হচ্ছে ৫০ হাজার থেকে পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত। এছাড়া দশ থেকে ১২ আইটেমের সোফা সেটের দাম রাখা হচ্ছে ৬০ হাজার থেকে তিন লাখ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত। তাছাড়া একাধিক আইটেমের নানা রকম ফার্নিচার তো রয়েছেই।
এছাড়া ২৬তম চট্টগ্রাম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় অংশগ্রহণ করেছে নাভানা ও পারটেক্স ফার্নিচার। এই দু’টি ফার্নিচার কোম্পানিও তাদের নিজেদের ইউনিক অসবাবগুলো প্যাভিলিয়নে প্রদর্শন করেছে।