বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের বর্ষবিদায় অনুষ্ঠান

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, যুগ যুগ ধরে বাংলার নববর্ষ বরণ ও বর্ষবিদায় জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে অসাম্প্রদায়িক এক উৎসবে পরিণত হয়েছে। এর ধারাবাহিকতায় এই অসাম্প্রদায়িক উৎসব উদযাপনের মধ্য দিয়ে জাতীয় ঐক্য সুদৃঢ় হয়েছে।
তিনি গতকাল সকালে জেলা শিশু একাডেমি মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট চট্টগ্রাম জেলা আয়োজিত ১৪২৫ বঙ্গাব্দ বিদায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে একথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, সমাজ সভ্যতার ক্রমবিকাশে নানা ঘাত-প্রতিঘাত আছে। এ থেকে উত্তরণের একমাত্র পথ নিজস্ব সংস্কৃতি ও কৃষ্টির পরিচর্যা করা।
প্রধান আলোচকের ভাষণে চবি শিড়্গক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. জাকির হোসেন বলেন, বাংলা বর্ষবিদায় ও বর্ষবরণ শুধুমাত্র পোশাকি আনুষ্ঠানিকতা নয়, এটা আমাদের অসিত্মত্বের ভিতকে প্রতিদিনের জন্য অনুভবের তাগিদ দেয়।
বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট চট্টগ্রাম জেলার সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত বর্ষবিদায় অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, জেলা শিশু একাডেমির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কুমকুম বড়-য়া, হাজী মোহাম্মদ আবু সিদ্দিক, জাহেদুর রহমান সোহেল, তানভীর আহমেদ রিংকু।
উপসি’ত ছিলেন মাসুদ উদ্দীন হামেদ নওয়াজ, হারম্ননুর রশিদ, মো. ইসমাইল, জাহেদুল আলম রিংকু, টিপু দাশ প্রমুখ।
বর্ষবিদায় অনুষ্ঠানে দলীয় সংগীত পরিবেশন করেন জেলা শিশু একাডেমির শিল্পীবৃন্দ। দলীয় নৃত্য পরিবেশন করেন নৃত্যশিল্পী ফজল আমিন শাওনা। যন্ত্রসংগীত পরিবেশন করেন জেলা শিশু একাডেমির শিল্পীবৃন্দ।