১৭ মার্চের আলোচনা সভায় বক্তারা

বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আমরা স্বাধীনতা পেতাম না

দেশগ্রাম ডেস্ক

বান্দরবান : বান্দরবানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন উদযাপিত হয়েছে। গতকাল সকালে জাতি জনকের ৯৭তম জন্মদিন ও শিশু দিবসকে ঘিরে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে বর্ণাঢ্য র্যা লি বের করা হয়। পরে শহরের বঙ্গবন্ধু মুক্তমঞ্চে জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিকের সভাপতিত্বে আয়োজিত শিশু-কিশোর সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি। এসময় জেলা পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, পৌর মেয়র মো. ইসলাম বেবী, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য কাজল কান্তি দাশ, জেলা পরিষদের সদস্য ক্যসাপ্রু মারমা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আবু জাফরসহ সরকারি- বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-শিশু কিশোরেরা উপসি’ত ছিলেন। বিকালে রাজার মাঠে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। জেলা আওয়ামীলীগ’সহ সহযোগী সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা উপসি’ত ছিলেন। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বীর বাহাদুর এমপি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বাস্তবায়নের মাধ্যমে দেশ ও জাতির কল্যাণ, শান্তি ও অগ্রগতি নিশ্চিত করা সম্ভব।
সাতকানিয়া : সরকারি নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও গতকাল বৃহস্পতিবার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবসের কোনো কর্মসূচি পালন করেনি সাতকানিয়া উপজেলা স্বাস’্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ। অধিকাংশ চিকিৎসক ও অন্যান্য কর্মকর্তারা ছিলেন কর্মস’লে অনুপসি’ত। সকাল থেকে স্বাস’্য কমপ্লেক্সের প্রধান ফটক ও উপজেলা স্বাস’্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার দপ্তর ছিল তালা ঝুলানো। উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নগুলোর স্বাস’্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র ও কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোতেও কর্মসূচি পালন করতে দেখা যায়নি। এ ঘটনায় চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন সাতকানিয়া উপজেলা স্বাস’্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে মৌখিকভাবে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছেন। হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ড ঘুরে দেখা যায়, ইমার্জেন্সিসহ হাসপাতালের ওয়ার্ডগুলোতে উপজেলা স্বাস’্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. হাছান মুরাদ, ডা. আরশিয়া মরজান মিলি, ডা. ফাতেমা বেগম ও ডা. খোকন চৌধুরী ৪ জন চিকিৎসক দায়িত্ব পালন করছেন। এ ব্যাপারে সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ উল্যাহ বলেন, বিষয়টি আমি জেলা সমন্বয় সভায় আলোচনা করব। সাতকানিয়া পৌর মেয়র মোহাম্মদ জোবায়ের বলেন, বিষয়টিকে আমি সরকার ঘোষিত কর্মসূচিকে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ বলে মনে করি।
মহালছড়ি : মহালছড়িতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন উপলক্ষে আনন্দ র্যাবলি, আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। র্যারলিটি পাইলট উচ্চবিদ্যালয়ের অডিটরিয়ামে এসে আলোচনা সভার মাধ্যমে শেষ হয়। আলোচনায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ইলিয়াছ মিয়া’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান বিমল কান্তি চাকমা। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাকলী খীসা, থানার অফিসার ইনচার্জ সেমায়ূন কবির চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক রতন কুমার শীল। আলোচনায় বক্তারা বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কর্ম ও রাজনৈতিক জীবন অসামান্য গৌরবের। তাঁর গৌরবের ইতিহাস থেকে প্রতিটি শিশুর মাঝে চারিত্রিক দৃঢ়তার ভিত্তি গড়ে উঠুক, এটাই শিশু দিবসের মূল প্রতিপাদ্য।
রাজস’লী : রাজস’লী উপজেলায় বঙ্গবন্ধু জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে তাইতং পাড়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বাণীব্রত চৌধুরী এ সময় বিদ্যালয় শিক্ষকগণ উপসি’ত ছিলেন। সহকারী শিক্ষক অশোক দেব নাথের সঞ্চালয়নায় সভায় বক্তব্য রাখেন সদানন্দ বিশ্বাস।
রাউজান : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জম্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে রাউজান উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এহেসানুল হায়দার বাবুলের নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য র্যাজলি রাউজান উপজেলা সদর প্রদিক্ষণ করে। পরে একে এম ফজলুল কবির চৌধুরী মোমোরিয়াল হলে শিশুদের রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার কুলপ্রদীপ চাকমার সভাপতিতে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এহেসানুল হায়দার বাবুল, উপজেলা সহকারী কমিশনার-ভূমি দীপক কুমার রায়, কাউন্সিলর বশির উদ্দিন খান, চেয়ারম্যান কাজী দিদারুল আলম, আলহাজ দিদারুল আলম, মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল আলম, উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা মুজিবুর রহমান, কৃষি কর্মকর্তা শামিম হোসাইন, প্রকল্প বাস্তায়ন কর্মকর্তা নিয়াজ মোরশেদ, শিক্ষক নেতা জাবের ফারুক, অনুপম দাশগুপ্ত।
মিরসরাই : মিরসরাইয়ে পৃথক পৃথকভাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন পালন করা হয়েছে। সকালে বারইয়ারহাট পৌরসভা, কলেজ ও হিঙ্গুলী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যৌথ উদ্যোগে জন্মদিন উপলক্ষে মিছিল, কেক কাটা ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। পরে বিকালে জন্মদিন পালন করেন বারইয়ারহাট পৌর, কলেজ ও হিঙ্গুলী ইউনিয়নের পদবঞ্চিত ছাত্রলীগ নেতারা।
বারইয়ারহাট পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি মো. ফারুক ইসলামের সভাপতিত্বে ও বারইয়ারহাট কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ফরহাদ হোসেন রাজুর সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা ছাত্রলীগ যুগ্ম আহবায়ক ইব্রাহীম খলিল ভূইয়া। বারইয়ারহাট হাইওয়ে চত্বরে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগ নেতা নাজমুল হাসান সেতু, বোরহান উদ্দিন মামুন, মো. আজাদ রুবেল, ঈসমাইল হোসেন রিশাত, আওয়ামী লীগ নেতা এসহাক, যুবলীগ নেতা মো. শা জাহান, রুবেল, সাইফুল, রাসেল, হারুন অর রশিদ বাবু, কামরুল হাসান, মামুন, সাইফুল, আকতার হোসেন, জাহেদ টিপু, রাসেল, তারেক রিফাত আজিম, বাবলু, হামিদ, রাকিব, তোফায়েল ফাহিম। পরে কেক কেটে জন্ম দিন পালন করা হয়। বিকালে বারইয়ারহাট পৌর, কলেজ ও হিঙ্গুলী ইউনিয়নের পদবঞ্চিত ছাত্রলীগ নেতারা বঙ্গবন্ধর জন্মদিন পালন করেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন হিঙ্গুলী বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদের সহ-সভাপতি মহিউদ্দিন। শাহরিয়ার সোহেলের সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আরেফিন নাহিদ। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দাউদুল ইসলাম সোহাগ, আবদুল্লাহ আল রিফাত, এনাম হোসেন সাদ্দাম, ইমাম হোসেন রানা, আবু নাঈম, আশরাফুল ইসলাম, নাঈমুল ইসলাম। পরে কেক কেটে জন্ম দিন পালন করা হয়।
চন্দনাইশ : চন্দনাইশে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস পালিত হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল র্যা লি, আলোচনা সভা ও হাম্‌দ না’ত ও কেরাত প্রতিযোগিতা। সকালে চন্দনাইশ পৌরসভার মেয়র মাহাবুবুল আলম খোকা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সনজীদা শরমিনের নেতৃত্বে র্যা্লি উপজেলার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে উপজেলা অডিটরিয়ামে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল জব্বার চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন পৌর মেয়র আলহাজ মাহাবুবুল আলম খোকা। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সনজীদা শরমিনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন থানার অফিসার ইনচার্জ গাজী শাখাওয়াত হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আবু আহমদ জুনু, হাবিবুর রহমান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা সোলাইমান ফারুকী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহানাজ বেগম, বলরাম চক্রবর্ত্তী, কায়সার উদ্দীন চৌধুরী, কমান্ডার জাফর আলী হিরু, ইউপি চেয়ারম্যান আহমদ হোসেন ফকির, ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান বেগসহ উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ।
সীতাকুণ্ড : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিবস ও শিশু দিবসে সীতাকুণ্ডে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালের শুভ উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধন করেন দিদারুল আলম এমপি। এমপি’র নিজস্ব অর্থায়নে নির্মিত উপজেলা পরিষদ শহীদ মিনার সংলগ্ন ম্যুরাল উদ্বোধনকালে তিনি বলেন, মহান এ নেতার জন্ম না হলে আমরা এ স্বাধীনতা পেতাম না। উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা নাজমুল ইসলাম ভুইয়ার সভাপতিত্বে ও মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফেরদৌস হোসেনের পরিচালনায় ম্যুরালে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন দিদারুল আলম এমপি। উপসি’ত ছিলেন পৌর মেয়র মুক্তিযোদ্ধা বদিউল আলম, আওয়ামী লীগ নেতা মহিউদ্দিন বাবলু, ভাইস চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন সাবেরি, মো. ইসহাক, আবদুল্লাহ আল বাকের ভুঁইয়াসহ উপজেলা প্রশাসন কর্মকর্তা, সুশীল সমাজ ও বিভিন্ন স্কুল থেকে আগত ছাত্রছাত্রীরা।
এছাড়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড সংসদ, সীতাকুণ্ড পৌরসভা, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ও শিক্ষক সমিতি, সীতাকুণ্ড বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, খেলাঘর-সীতাকুণ্ডসহ বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন ম্যুরালে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে।

আপনার মন্তব্য লিখুন