ফয়’স লেক বধ্যভূমিতে আলো প্রজ্বলন

নগরীর ফয়’স লেক বধ্যভূমিতে গতকাল ৯ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টায় আলো প্রজ্বলন করেছেন জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি চট্টগ্রাম কর্তৃক আয়োজিত গণহত্যার শিকারগ্রস্ত ও নির্যাতিত মানুষদের স্মৃতির কথা স্মরণ করার লক্ষে এ আলো প্রজ্বলন করা হয়। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তার দোসররা যে গণহত্যা চালিয়েছিল তা দৃষ্টান্ত বিরল। এত কম সময়ে, একটি মাত্র দেশে ৩০ লক্ষেরও বেশি মানুষ কোথাও হত্যা করা হয়নি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এ ধরনের ঘটনা প্রথম। শুধু তাই নয়, হত্যার সঙ্গে নির্যাতন করা হয়েছে ৬ লক্ষেরও বেশি নারীকে। এছাড়া নিপীড়িত হয়েছে অসংখ্য মানুষ। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের গণহত্যার শিকারগ্রস্ত ও নির্যাতিত মানুষদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা রেখে চলতি সালের ১১ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের সাধারণ সভায় ৯ ডিসেম্বরকে গণহত্যার শিকারগ্রস্তদের স্মরণ ও মর্যাদা দান এবং গণহত্যা প্রতিরোধের আন্তর্জাতিক দিবস হিসেবে প্রচার করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। এ সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে শিল্পকলা একাডেমি এ বছর থেকে প্রতিটি জেলা ও উপজেলার বধ্যভূমিতে আলো প্রজ্বলন করে গণহত্যার শিকারগ্রস্ত ও নির্যাতিত মানুষদের স্মরণ করবে।
জেলা শিল্পকলা একাডেমির কালচারাল অফিসার মোসলেম উদ্দিন সিকদারের পরিচালনায় ফয়’স লেকস’ বধ্যভূমিতে আলো প্রজ্বলন অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপসি’ত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের জেলা কমান্ডার মো. সাহাবুদ্দিন, ডেপুটি কমান্ডার মাহাবুবুল আলম, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কবি এজাজ ইউসুফী, চসিক কাউন্সিলর আবিদা আজাদ, জেসমিন পারভীন জেসি, জহুর আহমদ চৌধুরী ফাউন্ডেশনের পরিচালক শরফুদ্দীন রাজু, সংগঠক সুনীল ধর, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সাইফুল আলম বাবু, কবি ও সাংবাদিক কামরুল হাসান বাদল, হাসিনা জাকারিয়া বেলা, সাংবাদিক ফারুক তাহের ও রনজিত কুমার শীলসহ মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। বিজ্ঞপ্তি

আপনার মন্তব্য লিখুন