ফটিকছড়িতে গৃহবধূকে জবাই করে হত্যা

নিজস্ব প্রতিনিধি, ফটিকছড়ি

ফটিকছড়ির ভূজপুর থানাধীন হারম্নয়ালছড়ি পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডের মহানগর হিন্দুপাড়ায় মামনি বালা দে (২৬) নামে এক গৃহবধূকে জবাই করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার দিবাগত রাতে মহানগর (প্রকাশ) ময়নাপুর গ্রামের ভুবন মহাজন বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এছাড়া নিহতের শ্বশুর মিলন কানিত্ম দে দুর্বৃত্তদের আঘাতে (৬০) গুরম্নতর আহত হন। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে।
স’ানীয়রা জানান, ডাকাতির উদ্দেশে এ ঘটনা ঘটাবে, আমরা এ ঘটনা দেখিনি এ এলাকায়।
নিহতের শাশুড়ি জানান, আনুমানিক রাত ১টায় ঘরের ছাদের উপর দিয়ে তারা ভেতরে প্রবেশ করে জিনিসপত্র এলোমেলো করে ফেলে।
তিনি আরও জানান, দেড় বছরের নাতি কান্নাকাটি করলে নাতিকে নিয়ে ঘরের বাইরে চলে আসি, প্রতিবেশীদের

ডাকাতির বিষয়টি জানালে তারা ছুটে আসে। পরে ঘরে গিয়ে দেখি পূত্রবধূ এবং আমার স্বামী মাটিতে পড়ে আছে।
তিনি আরও বলেন, এলাকার কারও সাথে তাদের বিরোধ নেই, পালিয়ে যাবার সময় পাশের বাড়ির সানি নামের এক যুবককে তিনি দেখতে পান। তারা যাবার সময় দুটি মোবাইল ও টর্চ নিয়ে যায়।
খবর পেয়ে রাতেই পুলিশ ঘটনাস’লে ছুটে আসে এবং গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে। এলাকাবাসী গুরম্নতর আহত মিলন কানিত্মকে (৫৫) উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যালে নিয়ে যায়। নিহত গৃহবধূর স্বামী রম্নপন কানিত্ম দে দীর্ঘদিন ধরে প্রবাসে রয়েছেন।
এদিকে এলাকা থেকে সন্দেহভাজন তিন যুবককে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হচ্ছে সানি দাশ (১৯), পিতা অমর দাশ, জয় দেব (১৮), পিতা উজ্জল দেব, তয়ন দে (২২) পিতা শ্যামল দে।
ভূজপুর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ আবদুলস্নাহ বলেন, ঘটনার সাথে জড়িত থাকা তিনজনকে আটক করেছি, ঘটনাস’লে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে, তদনত্ম অব্যাহত রয়েছে।