রোদেলা বিকেলের বিশেষ আয়োজন

প্লাটিনাম লাচ্ছা সেমাই

নিজস্ব প্রতিবেদক
Untitled-1

টিভিতে লাচ্ছা সেমাইয়ের চটকদার বিজ্ঞাপন দেখে অনেকের মনেই সংশয় জাগে, যেভাবে মানের কথা প্রচার করা হয়, ব্র্যান্ডগুলো কি আসলেই এমন মান অনুযায়ী তা তৈরি করে! মাছি পড়ে থাকা বাজারের খোলা লাচ্ছা সেমাই বা প্যাকেটজাত লাচ্ছা সেমাই, মনে সংশয় থেকেই যায়। কিন’ রোদেলা বিকেলের বাজারজাত করা নতুন লাচ্ছা সেমাইয়ের কারখানায় গিয়ে এ সংশয় উবে যায়। মোড়কে উল্লেখ করা প্রতিটি উপাদান সেখানে সংরক্ষিত আছে!
নগরীর স্টেডিয়াম পাড়ার সাড়া জাগানো রেস্টুরেন্ট রোদেলা বিকেল সম্প্রতি বাজারে এনেছে তাদের প্রস’ত করা ‘প্লাটিনাম লাচ্ছা সেমাই’। মোবাইল কোর্টের পরিচালিত অভিযানগুলোর কল্যাণে বাজারে যখন অনবরত নকল, ভেজাল ও অস্বাস’্যকর পরিবেশে লাচ্ছা সেমাই তৈরির ঘটনা ফাঁস হচ্ছে, তখনই ক্রেতাদের জন্য এমন গুণগত মানসম্পন্ন লাচ্ছা সেমাই বাজারে আনলো রোদেলা বিকেল।
রেস্টুরেন্টটির ব্যবস’াপক সাইনুল সাবের সুপ্রভাতকে জানান, ‘লাচ্ছা সেমাই তৈরিতে আমরা ব্যবহার করেছি দক্ষিণ কোরিয়ার টপ কোয়ালিটির ময়দা, ভারতের গুজরাটের বিখ্যাত বনস্পতি ডালডা, তুরস্কের ব্রিন্টো সানফ্লাওয়ার ওয়েল, নিউজিল্যান্ডের রেডকাউ বাটার ওয়েল, ফরিদপুরের আদি ঘোষের তৈরি খাঁটি গাওয়া ঘি ও শতভাগ বিশুদ্ধ ফ্রেশ ব্র্যান্ড খাবার পানীয়।
খাদ্যমানের নিশ্চয়তায় ফুডগ্রেড কাগজে লাচ্ছা সেমাইটির মোড়কজাত করা হয়েছে বলে জানান মোড়কের ডিজাইনার হোসাইন তৌফিক ইফতিখার। তিনি বলেন, খাদ্যমান নিশ্চিত করতে ফুডগ্রেড কাগজে আমরা প্যাকেটটি তৈরি করেছি। এর ধরন, ডিজাইন, এমনকি রঙ নির্বাচনেও আমরা ক্রেতাদের রুচির কথা মাথায় রেখেছি।
রেস্টুরেন্টের গ্রাহকদের আস’ার প্রতিদান দিতেই এ সেমাই বাজারে আনা বলে জানান রেস্টুরেন্টটির ব্যবস’াপক সাইনুল সাবের । তিনি বলেন, ‘সাড়ে চার বছর ধরে যে রেস্টুরেন্টটি পরিচালনা করছি, প্রতিনিয়ত এর গ্রাহকদের মানসম্পন্ন খাবারের যোগান দেয়া আমাদের জন্য একটি চ্যালেঞ্জ। গ্রাহকদের এ আস’ার প্রতিদান দিতে চাই। তাই এবার বাজারে লাচ্ছা সেমাই আনা।