প্রেম প্রশিক্ষক বাবু!

Babu_748937964শুটিংয়ে ফজলুর রহমান বাবুর সঙ্গে কয়েকজন ঘুরঘুর করছে সবসময়। তিনি হাতে একটি লাঠি নিয়ে, ঠোঁটের ফাঁকে বাঁশি, বাইনোকুলার গলায় ঝুলিয়ে, হ্যাট পরে মাথায়- তাদেরকে নির্দেশ দিয়ে চলছেন। কখনও নামিয়ে দিচ্ছেন হাডুডু খেলায়, কখনও ষোলগুটি- এসব চিরাচরিত গ্রামীণ খেলায় রেফারি হয়ে বাবু নির্দেশনা দিচ্ছেন। প্রশ্ন করা হলো, আপনি স্পোর্টস টিচার নাকি? উত্তর এলো- ‘না। প্রেম প্রশিক্ষক!’
এ এক অদ্ভুত পেশা! তার কাছে প্রশিক্ষণ নিতে গেলে বয়স হতে হবে কমপক্ষে বাইশ বছর। আর প্রেমের ব্যাপারে থাকতে হবে সততা। তিনি কীভাবে প্রেম সফল করে তুলতে হয়, হাতে-কলমে কলাকৌশল শিখিয়ে দেবেন! খেলাধুলা, সাঁতার, দৌড়ঝাঁপ- সবকিছুই এ প্রশিক্ষণের আওতায় পড়ে।
ফজলুর রহমান বাবু সমপ্রতি ‘জেনুইন লাভার’ নামে যে নাটকটিতে অভিনয় করলেন, এতে তার চরিত্র এমনই। চরিত্রের নাম মোকাম আলী। আন্ডারম্যাট্রিক, কিন’ প্রেম প্রশিক্ষক হিসেবে সফল। নাটকটিতে প্রাণ রায়, তারিক স্বপন, নূরে আলম নয়ন ও আল আমিন সবুজ- এ চারজন বাবুর প্রেম প্রশিক্ষণার্থী। রয়েছেন শাহনাজ খুশিও। চিত্রনাট্য অয়ন চৌধুরীর, পরিচালনা করেছেন আশফাকুর রহমান আশিক। দৃশ্যধারণ হয়েছে গত মাসে, পরিচালকের নিজের এলাকা ঢাকার দোহারে। আশিক বলছিলেন, ‘নিজের বাড়ির আশপাশেই কাজ করেছি। খুব আয়েশেই শুটিং করা গেছে। অবসরে বাবু ভাই, প্রাণ রায় সবাই মিলে খেলাধুলাও হয়েছে বেশ। ক্রিকেট, ফুটবল, ষোলগুটি, হাডুডু- কিছুই বাদ পড়েনি।’ ‘জেনুইন লাভার’-এর সম্পাদনার কাজ চলছে। শেষ হলে যে কোনো একটি টিভি চ্যানেলে প্রচারের জন্য জমা দেওয়া হবে বলে জানান নির্মাতা।

আপনার মন্তব্য লিখুন