প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি চবি শিক্ষক কারাগারে

চবি সংবাদদাতা

ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি করার অভিযোগে দায়ের করা আইসিটি মামলায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) সমাজতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাইদুল ইসলামকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। গতকাল সোমবার চট্টগ্রামের জেলা ও দায়রা জজ মো. ইসমাইল হোসেনের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে তা নামঞ্জুর করে শিক্ষক মাইদুলকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আসামি পক্ষের আইনজীবী দুলাল লাল ভৌমিক। তিনি জানান, ‘উচ্চ আদালত থেকে আট সপ্তাহের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দেওয়া হয়েছিল। আট সপ্তাহ জামিন শেষে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করলে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।’ এ ব্যাপারে ছাত্রলীগ নেতা ইফতেখার উদ্দিন বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তির বিষয়টি কোনোভাবে মেনে নেয়া যায় না। আদালতের এই রায়ে আমি সন’ষ্ট। এটি এক দৃষ্টান্ত হওয়া দরকার, যাতে ভবিষ্যতে কেউ জননেত্রীর বিরুদ্ধে কটূক্তি করার সাহস না পায়।’
প্রসঙ্গত, গত ২৩ জুলাই চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাইদুল ইসলামের বিরুদ্ধে হাটহাজারী থানায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় মামলা করেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ইফতেখার উদ্দিন আয়াজ। এর আগে, ওই শিক্ষককে ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা ও চাকরিচ্যুত করার দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।