সাদার্ন ইউনিভার্সিটির আন্তর্জাতিক সম্মেলনে ইউজিসি চেয়ারম্যান

প্রতিযোগিতার বিশ্বে টিকতে হলে মাঠে কাজ করতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক
Untitled-1

‘আমরা সবাই এসি রুমের অফিসে বসে কাজ করতে আগ্রহী। কেউ আর মাঠে যেতে চায় না, কষ্ট করতে চায় না। এ ধরনের মানসিকতা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। প্রতিযোগিতার বিশ্বে টিকে থাকার জন্য মাঠে কাজ করতে হবে।’
চট্টগ্রাম ইনস্টিটউশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের (আইইবি) সম্মেলন কক্ষে গতকাল সকাল ১০টায় সাদার্ন ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ’র পুরকৌশল বিভাগ প্রথমবারের মতো ‘রিসার্চ অ্যান্ড ইনোভেশন ইন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং (আইসিআরআইসিই)’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এ অনুষ্ঠানের উদ্বোধনীতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল মান্নান এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, ‘যুগোপযোগী শিক্ষা না থাকলে বেকারত্বের হার বেড়ে যাবে। ইঞ্জিনিয়াররা কেউ বেকার থাকে না। যারা টেকনিক্যাল বিষয়ে দক্ষ তাদের জন্য সব প্রতিষ্ঠানের চাহিদা থাকে। বাংলাদেশি ইঞ্জিনিয়াররাই পদ্মা সেতু নির্মাণে কাজ করছেন, এটা দেশের জন্য গৌরবের। এছাড়া বর্তমান সরকারের মেয়াদে বিভিন্ন সেক্টরে কাঙ্ক্ষিত অনেক উন্নয়ন হয়েছে। শিক্ষা, আইটি, কৃষি, পোশাক শিল্প, রেমিট্যান্স, অবকাঠামোসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে আমাদের সফলতা এসেছে।’
এ অনুষ্ঠানটি সাদার্ন ইউনিভার্সিটির পুরকৌশল বিভাগের উপদেষ্টা ও চুয়েটের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক প্রকৌশলী মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনের প্রথমদিনে বিশেষ অতিথি হিসেবে সাদার্ন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. নুরুল মোস্তফা, সাদার্ন ইউনিভার্সিটির উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক সরওয়ার জাহান ও আইইবি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী সাদেক মোহাম্মদ চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।
দু’দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত এ সম্মেলনে তিনটি কি-নোট সেশন ও সাতটি টেকনিক্যাল সেশন রয়েছে। প্রথম দিনে কি-নোট স্পিকার ছিলেন ভারতের আইআইটি খরগপুরের পুরকৌশল বিভাগের সাবেক প্রধান প্রফেসর ড. বি বি পাণ্ডে। তিনি বিটুমিনাস এবং কনক্রিট পিগমেন্ট ডিজাইনের উপর বক্তব্য রাখেন এবং এ ধরনের রাস্তার স্থায়িত্ব নিয়ে করণীয় বিষয়ে প্রকৌশলীদের পরামর্শ দেন।