পেকুয়ায় রাস্তা নির্মাণকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের আশংকা

নিজস্ব প্রতিনিধি, পেকুয়া

পেকুয়ার টইটং ইউনিয়নের নাপিতখালী দক্ষিণপাড়া এলাকায় বসতবাড়ির ভিতর দিয়ে রাস্তা নিতে অভিনব কৌশল গ্রহণের অভিযোগ উঠেছে এক প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে। এ নিয়ে দীর্ঘ ৪০ বছরের বসতবাড়ি বেদখল হওয়ার আশংকা করছে ভুক্তভোগীরা। এছাড়াও দু’পক্ষে এ নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা করছে স্থানীয় এলাকাবাসী। খোঁজ নিয়ে জানাযায়, টইটং নাপিতখালী-মৌলভি বাজার সড়কের দক্ষিণপাড়ায় মৃত বদিউল আলমের পুত্র গোলাম মুস্তফা ও মৃত সিরাজ মিয়ার পুত্র মাহমদ হোছাইন দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে বসবাস করে আসছেন। এছাড়াও তাদের আশেপাশে শতাধিক বসতবাড়ি রয়েছে। যার যার চলাচলের রাস্তাও রয়েছে। কিন্তু বিগত কয়েকমাস আগে একই এলাকার মৃত নুরুল ইসলামের পুত্র মো. হেলাল গং তাদের বসতবাড়ির ভিতর দিয়ে রাস্তা তৈরি করতে অভিনব কৌশল অবলম্বন করেন। এক পর্যায়ে গত ৪ দিন আগে মো. হেলাল গং নাপিতখালী-মৌলভি বাজার সড়কে যেতে তাদের নিজস্ব জমির উপর একটি রাস্তা তৈরি করে। কিন্তু ওই রাস্তায় যেতে চাইলে গোলাম মুস্তফা ও মাহমদ হোছাইনের বসতবাড়ির উপর দিয়ে যেতে হবে। এছাড়াও হেলাল গং তাদের জমি এক ব্যক্তিকে বিক্রি করেছে বসতবাড়ির ভিতর দিয়ে রাস্তা তৈরি করে দিবে মর্মে চুক্তি সম্পাদন করে। ইতিমধ্যে তারা রাস্তা তৈরি করতে নিষেধ করলে হত্যার মত হুমকি দিচ্ছে বলে ভুক্তভোগীরা জানিয়েছেন।
স্থানীয় আমানউল্লাহ চৌধুরী বলেন, মো. হেলাল গং তাদের সুবিধার জন্য ইতোমধ্যে মসজিদের জমি দখল করে রাস্তাটি তৈরি করেছে। এ রাস্তা দিয়ে নাপিতখালী সড়কে যাওয়ার কোন সুযোগ নাই। ইউপি সদস্য শাহাদত হোছাইন এ বিষয়ে বলেন যে, স্থানীয়ভাবে দুই পক্ষকে নিয়ে এ বিষয়ে আলাপ করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।