পুঁজিবাজারে দরপতন

সুপ্রভাত ডেস্ক

সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবস মঙ্গলবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক গত কার্যদিবসের চেয়ে কমে শেষ হয়েছে এ দিনের কার্যক্রম। এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ২৮ দশমিক শূন্য ৬ পয়েন্ট কমেছে এবং সিএসইর প্রধান সূচক ৭ দশমিক ৫১ পয়েন্ট কমেছে। এদিন উভয় পুঁজিবাজারে মোট লেনদেন হয়েছে ৩৯৫ কোটি ৩ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। গত সোমবার লেনদেন হয়েছিল ৫২২ কোটি ১৫ লাখ টাকা। ডিএসই ও সিএসইর ওয়েবসাইট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
এদিন সিএসইতে মোট শেয়ার লেনদেনের পরিমাণ ২৫ কোটি ৩৩ লাখ টাকা। গত সোমবার লেনদেন হয়েছিল ৩৬ কোটি ৫০ লাখ টাকার শেয়ার। সুতরাং এক কার্যদিবসের ব্যবধানে সিএসইতে লেনদেন কমেছে ১১ কোটি ১৭ লাখ টাকা।
এদিন সিএসইর প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ৭ দশমিক ৫১ পয়েন্ট কমে ১০ হাজার ৭৬৮ পয়েন্টে, সিএএসপিআই সূচক ১৬ দশমিক ৪১ পয়েন্ট কমে ১৭ হাজার ৮২১ পয়েন্টে, সিএসই-৫০ সূচক ১ দশমিক ৪৪ পয়েন্ট কমে ১৩ হাজার ৫২ পয়েন্টে এবং সিএসই-৩০ সূচক ৬৯ দশমিক ৮১ পয়েন্ট বেড়ে ১৬ হাজার ৩৪৩ পয়েন্টে অবস’ান করছে। এদিন সিএসইতে লেনদেন হওয়া ২১৫টি কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ৬০টির, কমেছে ১১০টির এবং কোনও পরিবর্তন হয়নি ৪৫টি কোম্পানির শেয়ার দর।
টাকার অঙ্কে এদিন সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষ ১০ কোম্পানি হলো- গ্রামীণফোন, এসিআই, বাংলাদেশ স্টিল রি-রোলিং লিমিটেড, বেক্সিমকো, কেয়া কসমেটিকস, আল আরাফাহ ব্যাংক, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন, অ্যাডভান্ট ফার্মা, মার্কেন্টাইল ব্যাংক এবং রহিমা ফুড।
ডিএসই
ডিএসইতে টাকার অঙ্কে মোট লেনদেন হয়েছে ৩৬৯ কোটি ৭০ লাখ টাকা। গত সোমবার লেনদেন হয়েছিল ৪৮৫ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। সুতরাং এক কার্যদিবসের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ১১৫ কোটি ৯৫ লাখ টাকা।
এদিন ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৩৪টি কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ৮৮টির, কমেছে ১৭৭টির এবং কোনও পরিবর্তন হয়নি ৬৯টি কোম্পানির শেয়ার দর।
এছাড়া টাকার অঙ্কে এদিন ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষ ১০ কোম্পানি হলো- গ্রামীণফোন, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন, বেক্সিমকো, ব্রাক ব্যাংক, আল আরাফাহ ব্যাংক, স্কয়ার ফার্মা, কেয়া কসমেটিকস, ইস্টার্ন লুব্রিকেন্টস, কুউন সাউথ টেক্সটাইলস মিলস লিমিটেড এবং উসমানিয়া গ্লাস শিট ফ্যাক্টরি।