পল্লীবিদ্যুতে ভাঙচুর : ২ সদস্যের তদন্ত দল পটিয়ায়

নিজস্ব প্রতিনিধি, পটিয়া

বিদ্যুতের অজুহাতে চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ (সদর দপ্তর) পটিয়ায় যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ভাঙচুর ও তাণ্ডবের ঘটনায় অবশেষে তদন্ত শুরু হয়েছে। বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের দুই সদস্যের তদন্ত দল পটিয়ায় এসেছেন। রোববার তদন্ত দলের আহবায়ক বাংলাদেশ বিদ্যুতায়ন বোর্ডের মানবসম্পদ দপ্তরের পরিচালক মো. দহিদুল ইসলাম ও উপ পরিচালক ঢালী ইউসুফ আহমেদ প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে বক্তব্য শ্রবণ করেন।
পল্লী অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি মাসের ৩ জুন বিদ্যুতের অজুহাতে দুপুর সোয়া ১২টায় অতর্কিতভাবে কিছু যুবক হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করে। পরে বিদ্যুৎ অফিসের সিসিটিভির ক্যামেরায় ধরা পড়ে ভাঙচুরকারীরা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মী। এ ঘটনায় দক্ষিণ জেলা যুবলীগ সদস্য আবু ছালেহ মো. শাহরিয়া ও ভাটিখাইন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা কাজী জিল্লুর রহমানকে এজাহারনামীয় আসামি করে পটিয়া থানায় অজ্ঞাতনামা দেড়শ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। এ ঘটনার প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ বিদ্যুতায়ন বোর্ডের পরিচালক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মো শহীদুল করিমের নির্দেশে দুই সদস্যের তদন্ত দল গঠন করা হয়। তদন্ত দলকে ৭ কার্য দিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়।
তদন্ত কমিটির আহবায়ক মো. দহিদুল ইসলাম বলেন, বিদ্যুতের অজুহাতে পটিয়া পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে যে হামলা-ভাঙচুর চালানো হয়েছে তা খুবই ন্যাক্কারজনক ও দুঃখজনক ঘটনা। চট্টগ্রাম জেলার মধ্যে সাবেক মহকুমা শহর হিসেবে পটিয়ার ঐতিহ্য রয়েছে। যার প্রেক্ষিতে বিদ্যুৎ অফিসের সদর দপ্তর রয়েছে পটিয়ায়। একটি প্রভাবশালীমহল বিদ্যুতের অজুহাতে ভাঙচুর ও যে তাণ্ডব চালিয়েছে তা প্রাথমিক তদন্তে প্রমাণ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় ইন্ধন দিয়েছেন পল্লী বিদ্যুতের খোদ এক পরিচালকও। বাস্তব ঘটনার প্রতিবেদন তারা শীঘ্রই দাখিল করবেন বলে জানান।