পেনিনসুলায় মেলার শেষ দিন আজ

পর্যটনের সব সেবা একসঙ্গে

নিজস্ব প্রতিবেদক
tourism-fair-at-peninsula-h

বিদেশে যেতে চাই এয়ারলাইন্স, ভ্রমণ করতে ট্র্যাভেল এজেন্সি আর থাকার জন্য ভালো হোটেল সুবিধা। এই সব বিষয়ে তথ্য ও সহায়তা দিতে এবার বন্দরনগরীতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে পর্যটন মেলা। কী নেই এখানে! ভারত, থাইল্যান্ডে চিকিৎসা নিতে যাওয়া মানুষদের জন্য হাসপাতালের প্রতিনিধি প্রতিষ্ঠানগুলোও চলে এসেছে নগরবাসীর দোরগোড়ায়।
১৬ নভেম্বর থেকে হোটেল পেনিনসুলায় শুরু হয়েছে এ মেলা। এতে অংশ নিয়েছে দেশের ১৮টি প্রতিষ্ঠান। হোটেল ট্যুরিজম, মেডিক্যাল ট্যুরিজম, হজ্ব ট্যুরিজম, এমনকি বাংলাদেশ ট্যুরিস্ট পুলিশের একটি স্টলও বসেছে মেলায়। মেলা উপলক্ষে বিভিন্ন ধরনের ছাড়, উপহার ও বিশেষ ব্যবস’া রেখেছে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো।
মেলা চলাকালে হোটেলে বুকিং দিলেই সাথে সাথে ৫০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে কক্সবাজারের হোটেল ওশ্যান প্যারাডাইস। আবার কেউ যদি পর্যটন মেলায় হোটেলটির স্টলে তোলা ছবি দিয়ে ফেসবুকে চেক ইন দেন, তাহলে সেসব ব্যক্তির মধ্যে থেকে র্যাফেল ড্রতে বিজয়ীকে হোটেলে থাকার সুব্যবস’া করেছে হোটেল কর্তৃপক্ষ। হোটেলটির ব্যবস’াপক (মার্কেটিং এন্ড সেলস) শাহিন মোহাম্মদ নওশাদ এ তথ্য জানান।
দেশের অভ্যন্তর ও বিদেশে ভ্রমণে আকর্ষণীয় প্যাকেজ তৈরি করেছে একটিভেশন ট্যুরিজম। দেশের মধ্যে সুন্দরবন, রাঙামাটি, সিলেট, সেন্টমার্টিন, নাটোর, সোনারগাঁওসহ বিভিন্ন স’ানে এবং মালদ্বীপ, শ্রীলঙ্কা, মালয়েশিয়া, কাশ্মীর, সিঙ্গাপুর, ব্যাংকক, পাতায়া, ইন্দোনেশিয়া, ভারতসহ অন্যান্য দেশেও সুলভ মূল্যে ভ্রমণ করতে পারবেন পর্যটকরা।
বিদেশে চিকিৎসা নিতে যাওয়া রোগীদেরকে তথ্য ও ডাক্তারদের সাথে যোগাযোগ করিয়ে দিতে মেলায় এসেছে ব্যাংকক হসপিটাল। মেলায় আসা ব্যক্তিদের জন্য যাবতীয় খরচে ১০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এছাড়া যেকোনো রোগীর জন্যই হেলথ প্রোফাইলের সুবিধাও দিচ্ছে তারা। হাসপাতালটির বাংলাদেশের প্রতিনিধি প্রতিষ্ঠান জানায়, অনেক রোগীই বিভিন্ন ডাক্তারের কাছে চিকিৎসা, পরীক্ষা করানোর পর তার ব্যবস’াপত্র প্রচুর জমে যায়। তখন অন্য কোনো ডাক্তারের কাছে গেলে সবগুলো স্টাডি করতে হয় আবার। অনেক ডাক্তারই যা করতে চান না। আমরা এই কাজটা সহজ করে দিয়ে দেশি ও বিদেশি দুই ধরনের ডাক্তারদের দিয়ে রিভিউ করে মাত্র দুই পৃষ্ঠায় তা তৈরি করে দিই। এটি হলো হেলথ প্রোফাইল। যেকোনো রোগীই এ সেবা নিতে পারবেন।
এছাড়া শুধুমাত্র মেলা উপলক্ষে টিকেট বুকিংয়ে ১০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে এয়ারলাইন্স প্রতিষ্ঠানগুলো। ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের ম্যানেজার (মার্কেটিং) মিনহাজুল আজাদ শাকিল জানান, মেলায় আসা দর্শনার্থীরা যেকোনো স’ানে ভ্রমণে টিকেট বুকিং দিলেই ১০ শতাংশ ছাড় পাবেন। রিজেন্ট এয়ারওয়েজও দিচ্ছে একই সুবিধা। এই প্রতিষ্ঠানের এক্সিকিউটিভ সদর উদ্দিন ইব্নে সিকান্দার সুপ্রভাতকে জানান, আমাদের দেশের মানুষ ভ্রমণ করতে অনেক পছন্দ করেন।
তাই তাদের সান্নিধ্যে আসতেই আমরা মেলায় অংশ নিয়েছি। আর পর্যটকদের সুবিধার জন্য মেলা উপলক্ষে বিশেষ ছাড়ও দিচ্ছি আমরা।
দেশের ২৭০০ ট্রাভেল এজেন্টদের জন্য অনলাইন বুকিং সুবিধা নিয়ে মেলায় হাজির হয়েছে বুকহটাক। মেলার দর্শনার্থীরা এই প্রতিষ্ঠানটির রেফারেন্সে যেকোনো ট্র্যাভেল এজেন্ট থেকে পাবেন বিভিন্ন রকম ছাড়সহ বিশেষ সুবিধা। এছাড়া কক্সবাজারের হিমছড়িতে নির্মাণাধীন বে হিলস হোটেলে বিনিয়োগে দুই লক্ষ টাকা ছাড় দিচ্ছে হোটেল কর্তৃপক্ষ। ১০ লক্ষ টাকার পরিবর্তে ক্রেতারা মেলা উপলক্ষে আট লক্ষ টাকায় শেয়ারের মালিক হতে পারবেন।
দেশের পর্যটন শিল্পকে আরো প্রসারিত করতে নবম বারের মতো মেলাটি আয়োজন করা হয়েছে বলে জানালেন মেলার আয়োজক প্রতিষ্ঠান দি বাংলাদেশ মনিটরের হেড অব মার্কেটিং মোহাম্মদ নূর ইসলাম। তিনি বলেন, ‘আমাদের পর্যটন শিল্পের যত প্রচার হবে, ততই এ শিল্প প্রসারিত হবে। তাই এ শিল্পের সাথে জড়িত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রচারের জন্যই এ মেলার আয়োজন। প্রতিবারের মতো এবারো অনেক প্রতিষ্ঠান আগ্রহের সাথে মেলায় অংশ নিয়েছে। চট্টগ্রামের মানুষরাও অত্যন্ত উৎসাহ নিয়ে মেলায় আসছেন।’ গত বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া এ মেলাটি আজ শনিবার সমাপ্ত হবে।