পটিয়ায় বিচারপতি হাসানের ঘরে দুর্ধর্ষ চুরি থানায় মামলা

নিজস্ব প্রতিনিধি, পটিয়া

পটিয়ায় বিচারপতি জেবিএম হাসানের ঘরে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। সংঘবদ্ধ চোরের দল ঘরের দরজা ভেঙে নগদ টাকা ও স্বর্ণলংকার চুরি করে নিয়েছে। রোববার গভীর রাতে উপজেলার জঙ্গলখাইন ইউনিয়নের এয়াকুবদণ্ডী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস’ল পরিদর্শন করেছে। তবে মালামাল উদ্ধার করতে পারেনি।
পুলিশ ও স’ানীয় সূত্রে জানা গেছে, বিচারপতি জেবিএম হাসানের গ্রামের বাড়ি পটিয়া উপজেলার এয়াকুবদণ্ডী গ্রামে। বিচারপতি ঢাকা শহরে বসবাস করার কারণে গ্রামের বাড়ি দেখশোনার দায়িত্বে রয়েছেন এক বৃদ্ধা। প্রতিদিনের মত ওই বৃদ্ধা রাতে ঘুমিয়ে পড়লে সংঘবদ্ধ চোরেরা রোববার গভীর রাতে ঘরের দরজা ভেঙে প্রবেশ করে আলমিরা থেকে এক ভরি স্বর্ণ ও নগদ ৮ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে বৃদ্ধার ঘুম ভেঙে গেলে তিনি চিৎকার দিলে চারিদিক থেকে এলাকার লোকজন এগিয়ে এলে চোরেরা ঘটনাস’ল ত্যাগ করে।
পার্শ্ববর্তী বাসিন্দা ও দক্ষিণ জেলা যুবলীগ নেতা মর্তুজা কামাল মুন্সি বলেন, এয়াকুবদণ্ডী গ্রামটি চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরকান মহাসড়কের পাশে হওয়ায় চোর ছিনতাইকারী, মাদক ব্যবসায়ীদের তৎপরতা বেশি। শাহ আমানত গ্যাস পাম্পকে ঘিরে মূলত এই অপরাধচক্র সক্রিয়।
বিচারপতি হাসানের কেয়ারটেকার মো. ফরিদ বাদি হয়ে পটিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। পটিয়া থানার পিএসআই মোহাম্মদ শহীদ ঘটনাস’ল পরিদর্শন করে বিচারপতির ঘরে চুরির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ ব্যাপারে পটিয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে ডিউটি অফিসার শ্যামল দে জানান।

আপনার মন্তব্য লিখুন