পৃথক অভিযান

পটিয়ায় পলিথিন কারখানাসহ তিন প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ ৫ হাজার টাকা জরিমানা

নিজস্ব প্রতিনিধি, পটিয়া

লবণ কারখানার আড়ালে অবৈধভাবে পলিথিন প্রস্তুতির দায়ে পটিয়ায় একটি কারখানাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে পৌর সদরের ইন্দ্রপুল লবণশিল্প নগরীর এস এম আলী সল্টের কারখানায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট ও পটিয়া সহকারী কমিশনার (ভূমি) মিল্টন রায় অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা আদায় করেন। অপর দিকে একই সময়ে পৌর সদরের থানার মোড়ের আল মদিনা হোটেলে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার পরিবেশন ও বিক্রির দায়ে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এছাড়া মহাসড়কে লক্কড়ঝক্কড় যাত্রীবাহী গাড়ি চালানোর দায়ে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। গাড়িটি থানা পুলিশের অধীনে জব্দ রয়েছে।
ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, পটিয়া ইন্দ্রপুল লবণশিল্প নগরীতে দীর্ঘদিন ধরে লবণ কারখানার আড়ালে অবৈধভাবে পলিথিন ব্যবসা করে আসছিল এস এম আলী সল্টের মালিক মোহাম্মদ আলী। গোপন খবর পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট মিল্টন রায় অভিযান চালিয়ে ১শ কেজি পলিথিন ও ৫শ কেজি পলিথিন তৈরির উপদান জব্দ করেন। যা পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রামের উপপরিচালক নাজমুল হুদার জিম্মায় দেওয়া হয়েছে বলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট জানান।
পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, থানার মোড় এলাকায় সরকারি অন্তত ২৭ শতক জায়গা কিছু ব্যবসায়ী কৌশলে অবৈধভাবে দখল করে রেখেলিছ। তারা কিছু জায়গা লিজ নিয়ে প্রায় ১০-১৫ কোটি টাকার সরকারি সম্পত্তি দখল করে রেখেছে। শীঘ্রই উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমোদনে তা উচ্ছেদ করা হবে।
ইন্দ্রপুল লবণশিল্প নগরীর এস এম আলী সল্টের মালিক মোহাম্মদ আলী জানান, তাদের কারখানায় পলিথিন তৈরির সকল কাগজপত্র রয়েছে। কিন্তু পরিবেশ অধিদপ্তর থেকে ছাড়পত্র না পাওয়ার কারণে ভ্রাম্যমাণ আদালতকে দেখাতে পারেননি। যার কারণে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।