পটিয়ায় কিশোরীর আত্মহত্যার চেষ্টা

পটিয়া পৌরসদরের ৪ নম্বর ওয়ার্ডে এক কিশোরী (১৩) আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। তাকে পটিয়া স্বাস’্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুর একটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
পরিবারের অভিযোগ, পাশের মরহুম আবদুল জব্বারের পুত্র মো. মনছুর (২৬) ওই কিশোরীর সঙ্গে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। বিষয়টি কিশোরীর চাচা গাজী মো. আবদুল্লাহ মনছুরের বড়ভাই মো. নাসিরকে জিজ্ঞেসা করলে সে উল্টো ক্ষুব্ধ হয়। এ ঘটনার সূত্র ধরে মনছুরের পরিবারের সঙ্গে কিশোরীর পরিবারের মধ্যে মারামারি হয়। এ অপমান সহ্য করতে না পেরে কিশোরী বুধবার দুপুরে এক সঙ্গে বিভিন্ন ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়।
তবে মনছুরের বড়ভাই মো. নাসির বলেন, তাদের সঙ্গে মূলত পাওনা টাকা নিয়ে প্রতিপক্ষের বিরোধ ছিল। ঘটনাটি ভিন্নখাতে নিতে তারা মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছে। হামলায় আহত মনছুরকে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে তিনি জানান। এদিকে, কিশোরীর চাচা ও পটিয়া থানায় দায়েরকৃত অভিযোগের বাদি গাজী মো. আবদুল্লাহ বলেন, তার ভাতিজিকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই এলাকার মনছুর শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। তার ভাতিজি স’ানীয় একটি মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ে।

আপনার মন্তব্য লিখুন