নেপালের জালে বাংলাদেশের ‘হাফ ডজন’

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক
P10-5

শুরু থেকেই দাপুটে ফুটবল খেলে নেপালকে উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। তহুরা খাতুনের হ্যাটট্রিকে ৬-০ গোলের জয় দিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ মহিলা ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে শুভসূচনা করেছে গোলাম রব্বানী ছোটনের দল। কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে গতকাল ম্যাচের শুরু থেকে নেপালের রক্ষণে চাপ দিতে থাকে বাংলাদেশ। চতুর্থ মিনিটে ডি-বক্সের ভেতর থেকে শামসুন্নাহারের নেওয়া শট কর্নারের বিনিময়ে গোলরক্ষক ফেরালে এগিয়ে যেতে পারেনি স্বাগতিকরা। খবর বিডিনিউজ।
তিন মিনিট পর শামসুন্নাহারের কাছ থেকে বল পেয়ে মার্জিয়ার নেওয়া শট গোলরক্ষককে ফাঁকি দিলেও ক্রসবারে লাগে। একটু পর মারিয়া মান্ডার বাড়ানো বল ধরে তহুরা খাতুনের নেওয়া শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।
আক্রমণের ধার ধরে রেখে একাদশ মিনিটে কাঙ্ক্ষিত গোল পায় বাংলাদেশ।
কর্নার থেকে মনিকা চাকমার ডি-বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া শট প্রতিপক্ষের এক ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে ঠিকানা খুঁজে পায়। তিনি মিনিট পর মার্জিয়ার কর্নার থেকে উড়িয়ে আসা বল আঁখি খাতুন নামিয়ে নেওয়ার পর আনুচিং মারমার সাইড ভলি জালে জড়ালে ব্যবধান দ্বিগুণ হয়।
৩২তম মিনিট ব্যবধান আরও বাড়িয়ে নেয় গত বছর এএফসি অনূর্ধ্ব-১৪ আঞ্চলিক চ্যাম্পিয়নশিপে নেপালকে ৯-০ ব্যবধানে উড়িয়ে দেওয়া বাংলাদেশ। এবার তহুরা একক প্রচেষ্টায় ডি-বক্সের ঢুকে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন।
কোণঠাসা নেপাল প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে আরও এক গোল হজম করে। তহুরার বাড়ানো বল ধরে আগুয়ান গোলরক্ষকে সহজে পরাস্ত করেন আনুচিং।
দ্বিতীয়ার্ধে মার্জিয়া-তহুরাদের খেলায় গতি কমে। তবে আরও দুই গোলে বড় জয় ঠিকই নিশ্চিত করে মেয়েরা। ৫৭তম মিনিটে মানিকার শট গোলরক্ষক ফেরানোর দুই মিনিট পর স্কোরলাইন ৫-০ করে বাংলাদেশ। আনুচিংয়ের শট ফিরে আসার পর তহুরা ফিরতি শটে লক্ষ্যভেদ করেন।
৭২তম মিনিটে আনুচিংয়ের বাড়ানো বল ধরে বাঁ পায়ের জোরালো শটে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন তহুরা। বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশও।
দিনের প্রথম ম্যাচে ভুটানকে ৩-০ গোলে হারানো ভারত আগামী মঙ্গলবার নেপালের মুখোমুখি হবে। একই দিনে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ভুটান।