নারী পাচারকারীর তালিকায় ফারুক-সজল!

বিনোদন প্রতিবেদক

পত্রিকায় খবর এসেছে ১১ নারী পাচারকারী গ্রেফতার। যে ছবি প্রকাশিত হয়েছে, তাতে দেখা গেল, এদের মধ্যে দুজন নাট্যাঙ্গনের পরিচিত মুখ; ফারুক আহমেদ ও আবদুন নূর সজল! সংবাদে জানানো হচ্ছে, পুলিশি তৎপরতায় বেড়িবাঁধ এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। কারণটা কী?
সজল বললেন অন্যকথা। জানালেন, একেবারে ভিন্ন ধরনের একটি নাটকে কাজ করেছেন তারা। যেখানে এভাবেই তাদের পত্রিকায় দেখা যাবে। নাটকের নাম ‘ভালোবাসার সীমান্তে’। সজল বললেন, ‘দেশে প্রতিনিয়ত নারী পাচার হচ্ছে। কীভাবে হচ্ছে, সেটা আড়ালেই থেকে যাচ্ছে। নাটকে দেখা যাবে, যে ছেলেটি একের পর এক মেয়েদের সঙ্গে ভালোবাসার ফাঁদ তৈরি করে; সে-ই এবার নিজের ফাঁদে পা দিয়ে বসবে। আমি মনে করি গল্পটি একটু হলেও মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করবে।’
‘ভালোবাসার সীমান্তে’ রচনা ও পরিচালনায় আছেন মনজুরুল আলম। এতে অপর কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন আশনা হাবিব ভাবনা। তিনি বললেন, ‘এ নাটকে আমি দর্জির দোকানে কাজ করে সংসার চালাই। এ মেয়েটি খুবই সহজ-সরল। যে ভালোবাসার মানুষের সঙ্গে আড়ালে-আবডালে মাঝে মধ্যে দেখা করে। তাকে নিয়েই নতুন একটি ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখতে থাকে। কিন’ সে নিজেই অপহরণের জালে ফেঁসে যায়’।
নাটকটিতে নবাব চরিত্রে অভিনয় করেছেন সজল ও কর্মী চরিত্রে ভাবনা। নারী পাচারকারীচক্রের হোতা হিসেবে আছেন ফারুক আহমেদ। এছাড়াও বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন পরান জহির, কাজী বাবুল, হোসনে মোবারক রুমি, আসিফ তালুকদার, বন্যা প্রমুখ। বেশ কিছু দিন আগে এর শুটিং হয়েছে বেড়িবাঁধ, আজিমপুর, নিউমার্কেট, পলাশী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায়। ‘ভালোবাসার সীমান্তে’ আগামী ১০ আগস্ট রাত ৮টায় আরটিভিতে প্রচার হবে।