নতুন সরকারের প্রথম মন্ত্রিসভা বৈঠক আজ

সুপ্রভাত ডেস্ক

২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে গঠিত হয়েছে নতুন সরকার। সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের নেতা হিসেবে আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গঠিত হয় ৪৭ সদস্যের মন্ত্রিসভা, যার প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠিত হচ্ছে সোমবার। তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বেলা ১০টায় এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের বৈঠকের বিষয়ে ব্রিফ করবেন। সচিবালয়ে মন্ত্রিসভা বিভাগের সভাকড়্গে এ ব্রিফ করা হবে। খবর বাংলাট্রিবিউনের।
প্রথা অনুযায়ী মন্ত্রিসভা বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ইতোমধ্যেই মন্ত্রিসভার বৈঠকের আলোচ্যসূচি ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ ব্রিফকেস সকল মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হয়েছে। জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন নতুন মন্ত্রিসভার এ বৈঠকে মন্ত্রিপরিষদের সব সদস্য উপসি’ত থাকবেন।
মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, এ বৈঠকে ছয়টি আলোচ্যসূচি রয়েছে। এরমধ্যে গুরম্নত্বপূর্ণ হচ্ছে, সংসদের প্রথম অধিবেশনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের ভাষণ। প্রথম মন্ত্রিসভা বৈঠকে রাষ্ট্রপতি সংসদে যে ভাষণ দেবেন তার খসড়া অনুমোদন করা হতে পারে। এ সংক্রানত্ম ভাষণটির খসড়া মন্ত্রীদের কাছে পাঠানো হয়েছে।
উলেস্নখ্য, বছরের শুরম্নতেই দেশের রাষ্ট্রপতি সংসদে ভাষণ দেন। বছরের শুরম্নতে শীতকালীন অধিবেশনে তিনি যে ভাষণ দেবেন তা মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত হতে হয়। মন্ত্রিসভার বৈঠকে অনুমোদন পাওয়া ভাষণই সংসদে দেন রাষ্ট্রপতি। এই ভাষণে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের উন্নয়ন কর্মকা-ের বিবরণ তুলে ধরা হয়।
জানা গেছে, রাষ্ট্রপতির ভাষণ ছাড়াও মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠকে আরও ৫টি আলোচ্যসূচি রয়েছে। এগুলো হচ্ছে, গণপ্রতিনিধিত্ব (সংশোধন) আইনের খসড়ার নীতিগত অনুমোদন। ইট প্রসত্মুত ও ভাটা স’াপন (নিয়ন্ত্রণ) (সংশোধন) আইনের খসড়ার নীতিগত ও চূড়ানত্ম অনুমোদন। জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদ আইনের খসড়ার চূড়ানত্ম অনুমোদন। বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র আইনের নীতিগত অনুমোদন এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরড়্গা আইন, ২০১৩ এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তির সুরড়্গা বিধিমালা-২০১৫ এর আলোকে প্রতিবন্ধী বিষয়ক জাতীয় কর্মপরিকল্পনার খসড়ার অনুমোদন। এসব আইন ও বিধির খসড়া গত বৃহস্পতিবার মন্ত্রিসভার সদস্যদের কাছে পাঠানো হয়েছে। শপথ নেওয়ার পর মন্ত্রীরা কাজ শুরম্ন করলেও এখন পর্যনত্ম কোনও মন্ত্রিসভা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়নি।