নগরে শিশু গৃহকর্মীর রহস্যজনক মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক

নগরের বায়েজিদ বোস্তামি থানা এলাকায় লিমা আক্তার নামের ১২ বছর বয়সী এক শিশু গৃহকর্মীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সকাল সাড়ে সাতটায় ডিওএইচএস আবাসিক এলাকার একটি ভবনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গৃহকর্ত্রী শাহেদা আক্তার এবং তার স্বামী মো. বখতেয়ারসহ চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।
বায়েজিদ বোস্তামি থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন বলেন, প্রাথমিকভাবে এ ঘটনা আত্মহত্যা বলে ধারণা করছি। তবে লিমা কী কারণে আত্মহত্যা করেছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। লিমা আক্তারের মা-বাবা নেই। দুই বছর আগে বাকলিয়ার রাজাখালী এলাকার এক নারী তাকে শাহেদার বাসায় কাজ দেন। শাহেদার স্বামীর বাড়ি রাউজান উপজেলায়।
পুলিশের কাছে শাহেদার দাবি, লিমা সকালে কাপড় শুকাতে দিতে গিয়ে অসাবধানতাবশত ছাদ থেকে পড়ে গুরুতর আহত হয়। দ্রুত তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ি থেকে বিষয়টি জানানোর পর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গৃহকর্ত্রী শাহেদাকে বায়েজিদ বোস্তামি থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তার স্বামী বখতেয়ার, বাড়ির দারোয়ান এবং দুই বছর আগে শাহেদার বাসায় কাজ দেওয়া বাকলিয়া এলাকার এক নারীসহ চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদের থানায় নেওয়া হয়েছে। লিমার ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে।
গতকাল দুপুরে ঘটনাস’লে গিয়ে দেখা যায়, ভবনটি ছয়তলা। এটির ছাদের চারপাশে আড়াই ফুট দেয়াল রয়েছে। এ দেয়াল টপকে নিচে পড়ে যাওয়ার ঝুঁকি কম। ভবনের একাধিক বাসিন্দা লিমার মৃত্যুর ঘটনা রহস্যজনক বলে মনে করেন। ছাদ থেকে পড়ে যাওয়ার শব্দ শুনলেও লিমা কী পড়ে গেছে, নাকি কেউ তাকে ফেলে দিয়েছে, নাকি আত্মহত্যা করেছে প্রশ্ন ওই ভবনের বাসিন্দাদের।