শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক

‘ধারাবাহিকতা রক্ষায় জোর বাদশাহ সালমানের’

সুপ্রভাত ডেস্ক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বাংলাদেশের চলমান উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষার ওপর জোর দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব মো.শহীদুল হক। খবর বিডিনিউজ’র।
বুধবার স’ানীয় সময় দুপুরে রিয়াদের রাজপ্রাসাদে শেখ হাসিনার সঙ্গে বাদশাহ সালমানের বৈঠক হয়। পরে তারা মধ্যাহ্ন ভোজে অংশ নেন।
পররাষ্ট্র সচিব বৈঠকের বিষয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘বাদশাহ বলেছেন উন্নয়েনর ধারাবাহিকতা দরকার। এতে তো বোঝা যায়, তিনি প্রধানমন্ত্রীর ধারাবাহিকতার কথা বলেছেন। এটা হলে বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের মধ্যে সম্পর্ক বৃদ্ধি পাবে।’
সৌদি আরবে চলতি বছর এটি প্রধানমন্ত্রীর দ্বিতীয় সফর। গত এপ্রিলে সৌদি আরব, বাংলাদেশসহ ২২ দেশের সামরিক মহড়া ‘গাল্ফ শিল্ড-১’ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে যোগ দিতেও সৌদি আরবে গিয়েছিলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী।
শহীদুল হক বলেন, সৌদি বাদশাহর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর এবারের বৈঠকও ‘অত্যন্ত সৌহাদ্যপূর্ণ ও উষ্ণ পরিবেশে’ হয়েছে।
‘সালমান বিন আব্দুল আজিজ আল সৌদ মানবিক গুণাবলী নিয়ে বলেছেন যে, সব মুসলমানের প্রতি তার কর্তব্য রয়েছে। ফিলিস্তিনের প্রতি বাংলাদেশের সমর্থনেরও প্রশংসা করেছেন তিনি।’
পররাষ্ট্র সচিব জানান, বাদশাহ তার প্রাসাদের গাড়ি বারান্দায় এসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানিয়ে ভেতরে নিয়ে যান।
‘তিনি প্রধানমন্ত্রীকে বলেছেন, ‘এটা আপনার বাড়ি, আপনি সব সময় এখানে আমন্ত্রিত’।’
শহীদুল হক বলেন, মধ্যাহ্ন ভোজের সময় বাদশাহ নিজে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে খাবার ঘরে যান। তিনি সৌদি আরবের বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী খাবার দেখিয়ে সেগুলোর নাম প্রধানমন্ত্রীকে বলেন।
বৈঠকে বাদশাহ সালমান অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক, প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা খাতে দুই দেশের সহযোগিতার সুযোগগুলো আরও কাজে লাগানোর ওপর জোর দেন বলে জানান পররাষ্ট্র সচিব।
পরে রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাসের নতুন ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নিজেও সৌদি বাদশাহর সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে কথা বলেন।
তিনি বলেন, ‘সৌদি আরবের সঙ্গে আমাদের চমৎকার সম্পর্ক। খুব ভালো আলোচনা হয়েছে। সৌদি বাদশাহকে সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছি। তিনি বলেছেন, বাংলাদেশে আসবেন।’
সৌদি বাদশাহর আমন্ত্রণে চার দিনের সফরে মঙ্গলবার সৌদি আরব পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার তিনি মক্কায় ওমরাহ পালন করবেন। সফর শেষে শুক্রবার তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।