পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন কাল

দুই গ্রুপের অস্তিত্ব ও শক্তির লড়াই

নিজস্ব প্রতিনিধি, পটিয়া

পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন কাল শনিবার অনুষ্ঠিত হবে।
পটিয়ার সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরীর একটি গ্রুপ ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রাশেদ মনোয়ার এবং সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিনের নেতৃত্বে অপর গ্রুপ মোকাবেলা করতে কোমড় বেঁধে মাঠে নেমেছেন। তবে সংসদ সদস্যদের অনুসারী গ্রুপ অনুষ্ঠিতব্য উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন শেষ করে দ্বিতীয় অধিবেশন না করারও পরিকল্পনা নিয়েছে বলে একটি পক্ষ অভিযোগ তুলেছেন।
মূলত, ২০১৪ সালের মত উপজেলা আওয়ামী লীগ কাউন্সিলরদের অধিকার ভোট প্রয়োগের মাধ্যমে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করার কথা ভাবছেন। গত বুধবার রাতে দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহমদের নগরীর বাস ভবনে উপজেলা ও পৌরসভা আওয়ামী লীগকে নিয়ে দফায় দফায় বৈঠক করেছেন। কিন্তু কোন সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারেনি বলে নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানায়। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সংগঠনের গঠনতন্ত্র মোতাবেক পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন সম্পন্ন করা হবে। উপজেলার ১৭ ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার কাউন্সিলরদের নামের তালিকা জেলা আওয়ামী লীগের কাছে ইতিমধ্যে জমা দিয়েছেন।
সংসদ সদস্যদের অনুসারী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের মনোয়ার-নাছিরের নেতৃত্বে অপর গ্রুপ কাউন্সিলরদের কাছে গিয়ে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করার জন্য আকুতি জানাচ্ছেন। একইভাবে সংসদ সদস্যদের গ্রুপ বিভিন্ন ইউনিয়নে গিয়ে উপজেলা সম্মেলন সফল করতে কর্মী সমাবেশও করে যাচ্ছেন। তাদের পক্ষ থেকে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের নাম এখনো পর্যন্ত ঘোষণা করা হয়নি।
প্রতিপক্ষ উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন পুনরায় সাধারণ সম্পাদক ও তাদের হয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সেলিম নবী সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বলে জানান। তবে পটিয়া পৌরসভার দুই বারের নির্বাচিত মেয়র ও পৌরসভা আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যাপক হারুনুর রশিদ তার জনপ্রিয়তা ও গ্রহণযোগ্যতাকে পুনরায় কাজে লাগাতে এবার উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সভাপতি প্রার্থী হয়েছেন। তিনি সভাপতি পদে নির্বাচিত হলে তৃণমূল নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে দলকে শক্তিশালী করতে ভূমিকা রাখবেন।
দলীয় ও বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, এবার সংগঠনের গঠনতন্ত্র মোতাবেক উপজেলা সম্মেলনে পৌরসভা আওয়ামী লীগকে অন্তর্ভুক্তি করা হয়েছে। যার কারণে দ্বিধাবিভক্ত আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপে একাধিক সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী উপজেলা সম্মেলনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে তৎপর।
তার মধ্যে সভাপতি পদে পটিয়া পৌরসভার মেয়র ও পৌরসভা আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যাপক হারুনুর রশিদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আ ক ম শামসুজ্জামান চৌধুরী। অপর পক্ষের সভাপতি প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো. সেলিম নবী ও সাধারণ সম্পাদক পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন ছাড়াও রয়েছে জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. তিমির বরন চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবদুল খালেক, বর্তমান কমিটির যুগ্ম সম্পাদক চেয়ারম্যান মো. সেলিম, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক ও কচুয়াই ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান এস এম ইনজামুল হক জসিম শেষ মুহূর্তে বিভিন্নভাবে লবিং শুরু করেছেন। চেয়ারম্যান জসিম শাহ্‌ আমানত তৃতীয় সেতু থেকে শুরু করে পটিয়ার মুজাফরাবাদ এলাকা পর্যন্ত মহা সড়কের বিভিন্ন স্পটে শতাধিক ব্যানার তুলেছেন।
শেষ মুহূর্তে চেয়ারম্যান জসিম সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তিনি জানিয়েছেন, ছাত্র রাজনীতি থেকে শুরু করে সে জনগণের ভোটে এলাকায় চেয়ারম্যানও নির্বাচিত হয়েছেন। তাকে নিয়ে দলের মধ্যে কোন ধরনের বিতর্ক নেই। কাউন্সিলরদের সহযোগিতা পেলে আগামী উপজেলা সম্মেলনে তিনি সাধারণ সম্পাদক পদে বিজয়ী হবেন।
এদিকে, শনিবার অনুষ্ঠিতব্য উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে ঘিরে ব্যানার ও পোস্টারে ছেয়ে গেছে। উপজেলা সদরের স্মৃতিসৌধ চত্বরে আয়োজিত এ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করবেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রাশেদ মনোয়ার। উদ্বোধক থাকবেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহমদ। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ। বিশেষ অতিথি থাকবেন দলের সাংগঠনিক সম্পাদক (চট্টগ্রাম বিভাগ) এনামুল হক শামীম, কেন্দ্রীয় কমিটির সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিন, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য এস এম কামাল হোসেন, পটিয়ার সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরী, জেলা আওয়মী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান। অনুষ্ঠান পরিচালনা করবেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন।
পটিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের সভাপতি পদপ্রার্থী মেয়র অধ্যাপক হারুনুর রশিদ জানিয়েছেন, উপজেলা সম্মেলনে এবার পৌরসভাকে অন্তর্ভুক্তি করায় তারা কাউন্সিলরদের নামের তালিকা সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরীর সঙ্গে সমন্বয় করে জেলা আওয়ামী লীগের কাছে হস্তান্তর করেছেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন সফল করতে হলে সকল কাউন্সিলদের সহযোগিতা দরকার।
অপরদিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন জানিয়েছেন, তাদের পক্ষ থেকে সভাপতি হিসেব প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো. সেলিম নবী।
তাছাড়া তিনি (নাসির) নিজেও পুনরায় সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বলে জানান।